সোহেল রেদোয়ানঃ কোরিয়া এবং পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যে সকল প্রবাসী বাংলাদেশীরা বৈদেশিক মুদ্রা পাঠিয়ে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির অর্থনীতি সচল রেখেছেন তাদের সবাইকে জানাই সালাম ও শুভেচ্ছা। আপনার সুদূর প্রবাস জীবনের কষ্টার্জিত অর্থ যেন সঠিক কাজে ব্যয় হয় সে ব্যাপারে আপনার নিজেকেই লক্ষ্য রাখতে হবে। কারণ এই অর্থ ‍উপার্জন করতে যে কতটা সময়, শ্রম ও মেধা ব্যয় করতে হয়েছে তা শুধু আপনিই জানেন, অন্য কেউ নয়।

আমি কয়েকটি ব্যাপারে কোরিয়ার প্রবাসী ভাইবোনদের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

এই প্রবাস জীবনে আমরা আমাদের নিজের অথবা প্রিয়জনের জন্য উচ্চমূল্যে বিভিন্ন জিনিসপত্র ক্রয় করে থাকি। বিদেশী বা নামিদামী ব্র্যান্ড মানেই যে ভাল পণ্য এ ধারণা অবান্তর। কোরিয়ার কয়েকটি সংবাদ পত্রের প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী, সিউলে অনেক নামিদামী ব্র্যান্ডের দোকানে নকল পণ্য বিদ্যমান! যা শুধু আপনাদের অর্থ ও সময়ই নষ্ট করবে না, সেই সাথে প্রিয়জনের কাছে নষ্ট হবে আপনার ভাবমূর্তি। অন্যদিকে কোরিয়ার সবেচেয়ে মূল্যমান মুদ্রা ৫০হাজার উওন এর জাল নোট বাজারে বর্তমান! যা আপনার অজান্তে হস্তগত হয়ে ঝামেলা যোগ করতে যথেষ্ট। একটু সচেতন হলেই এই ঝামেলা এড়ানো সম্ভব। লেনদেনে ব্যাংক কার্ড ব্যবহার করা এবং নগদ লেনদেন করতে বাধ্য হলে ৫০হাজার উওন এর বিকল্প ১০হাজার উওনের নোট ব্যবহার করা।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় দেশে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠানোর ক্ষেত্রে দু’টো ব্যাংক হিসাব খোলার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। একটি নিজের নামে অন্যটি পরিবারের যে কোন সদস্যের নামে। খুবই গুরুত্বপুর্ণ একটি উপদেশ। যা অনুসরণ করলে আপনার হিসাবের অর্থ সঞ্চিত থাকবে। সেই সাথে আমি যোগ করবো যে, আপনি চাইলে আপনার ব্যাংক হিসাবটি পৃথিবীর যেকোন স্থান থেকে দেখভাল করতে পারবেন। বাংলাদেশের অনেক ব্যাংকই এখন অন-লাইন সার্ভিস দিয়ে থাকে আর্থাৎ আপনার লেনদেন, জমা/উত্তোলন, সার্ভিস চার্জ ইত্যাদি দেখাশুনা করতে পারবেন যদি আপনার ইন্টারনেট সংযোগ থেকে থাকে। প্রয়োজন শুধু ঐ ব্যাংক গুলোর সাথে যোগযোগ করে আইডি ও পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করা। আরো একটি বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করছি যারা অর্থ ব্যাংকে জমা না রেখে বিভিন্ন লাভজনক খাতে বিনিয়োগ করছেন তারা ঝুকিঁ ব্যবস্হাপনার জন্য ‘‘ডোন্ট পুট অল ইউর এগস ইন এ বাস্কেট” এই রুলস অনুসরণ করতে পারেন। আর্থাৎ সঞ্চিত অর্থ সব একটি নির্দিষ্ট খাতে বিনিয়োগ না করে, বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ  করা নিরাপদ।

আপনাদের সকলের নিরাপদ, সুস্থ ও সুন্দর ভবিষ্যৎ কামনা করছি।

(খিয়ংগিদো ইছন থেকে)

ইমেইলঃ sranaxp@yahoo.com

 

 

4 টি মন্তব্য

  1. MD. HAFIZUR RAHMAN says:

    Yes, I also agree this and I believe this news will be helpful for us who are doing job in south korea.

    Thanks to Shohel Redwan vai.

  2. mohammad mahadi hassan says:

    thank you for your good advice.

  3. masud rana says:

    aponader molloban poramorser jonno ami aponader ke dhonnobad jani

  4. Redoyan says:

    @HAFIZUR, Hassan, Masud: Thanks Bro…
    Keep reading “www.banglatelegraph.com” & share with ur friends.
    All the best…

মন্তব্য করুন