আয়ু আর এক বছর, দিয়ে গেল ২৫ লাখ ইউরো

base_1482757225-tijon01

ব্রেন ক্যান্সার ধরা পড়েছে। দেহে কেমোথেরাপিও আর কাজ করছে না। বড়জোর আর এক বছর বাঁচবে ছয় বছরের শিশু টিজন। নিশ্চিত মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে এই বালক। অথচ কী তার মনের জোর! তার মতোই অসুস্থ শিশুদের চিকিৎসার জন্য একটি দাতব্য সংস্থার হয়ে সে এই অসুস্থ শরীর নিয়ে সংগ্রহ করে দিয়েছে ২৫ লাখ ইউরো।

এই অর্থ টিজন সংগ্রহ করেছে নখ রঙ করার এক ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে। রাস্তাঘাটে লোকজনের নখ রঙ করানোর মাধ্যমে তিন দিনে ২৫ লাখ ইউরো সংগ্রহ করেছে সে। সাধারণ মানুষও নিজে নখ রঙ করে এবং অন্যকে উদ্বুদ্ধ করে সহায়তা করেছে তার কাজে। সব অর্থ জমা হয়েছে দাতব্য সংস্থাটির তহবিলে।

নেদারল্যান্ডসের বাসিন্দা টিজন কলস্টেরেনের ব্রেন ক্যান্সার ধরা পড়ে গত মে মাসে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বড়জোর আর এক বছর বাঁচবে সে কারণ কেমোথেরাপি আর কাজ করছে না।

এটি নিশ্চিত হওয়ার পরই অসুস্থ শিশুদের চিকিৎসার জন্য অর্থ সংগ্রহ শুরু করে এই বালক। রাস্তাঘাটে লোকজনের নখ রঙ করে দিয়ে ওই অর্থ তোলার কাজ শুরু হয়। শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) শেষ হয় তিন দিনের ওই অভিযান। সাধারণ মানুষও ব্যাপক সাড়া দিয়েছে এতে।

টিজন জানায়, অন্য শিশুদের যতটা সম্ভব সহায়তা করতে চায় সে। এর আগে নেদারল্যান্ডসের একটি রেডিও স্টেশনে বাবার সঙ্গে হাজির হয়ে লোকজনকে নখ রঙ করিয়ে অর্থ সংগ্রহে সহায়তার আহ্বান জানায় ছয় বছরের এই বালক।

তহবিল সংগ্রহের সময় টিজন
তহবিল সংগ্রহের সময় টিজন

পরে ওই রেডিওর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘মানুষের নখ রঙ করে দেয়ার মাধ্যমে সে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের সহায়তা করতে চায়। এটা ছিল একটি অসাধারণ সাফল্য। প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট্টিসহ অনেক সেলিব্রেটিই তাদের নখ রঙ করিয়েছেন।’

এ নিয়ে খোলা হয় একটি ওয়েবসাইটও। সেখানে বলা হয়, ‘আপনার নখ রঙ করান, দান করুন এবং আপনার তিনজন বন্ধুকে দিয়েও একই কাজ করান।’ নিজের নখ রঙ করানোর ছবি সামাজিক মাধ্যমে দিয়ে অন্যদের উদ্বুদ্ধ করার জন্যও বলা হয় এতে।

এদিকে এই অসাধারণ উদ্যোগে ডাচ গণমাধ্যমে রীতিমতো ‘হিরো’ বনে গেছে টিজন, যার আয়ু আর মাত্র এক বছর! এডি নামের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকা ‘সুপারহিরো’ শিরোনামে প্রতিদিনই অসংখ্য ছবি দিয়ে টিজনের নামে সংবাদ প্রকাশ করছে।

সূত্র: ইন্ডিপেনডেন্ট, গার্ডিয়ান