সুড়ঙ্গ দিয়ে আক্রমণের পরিকল্পনা উত্তর কোরিয়ার!

34158

দক্ষিণ কোরিয়ায় আক্রমণের জন্য সীমান্তবর্তী এলাকায় সুড়ঙ্গ নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে।

গোপন সুড়ঙ্গ নির্মাণের মাধ্যমে দক্ষিণ কোরিয়া আক্রমণের পরিকল্পনা আঁটছেন উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন! এরই মধ্যে ২০টি সুড়ঙ্গ খোঁড়া হয়েছে বলেও ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা দুই দেশের সীমান্তবর্তী এলাকায় মাটির নিচে চারটি সুড়ঙ্গের কথা স্বীকার করেছেন। তবে আরো ১৬টি সুড়ঙ্গ খোঁড়া হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উত্তর কোরিয়া গোপনে পরমাণু বোমার পরীক্ষা চালিয়েছে এই খবর প্রকাশের কিছুদিনের মধ্যেই সুড়ঙ্গ তৈরির মাধ্যমে দক্ষিণ কোরিয়ার ওপর আক্রমণের এই সম্ভাব্যতার খবর প্রকাশিত হলো।

উত্তর কোরিয়া বিশেষজ্ঞ মাইকেল হ্যাভিস বলেছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার নির্মাণ করা এসব সুড়ঙ্গের মধ্যে কোনো কোনটি এমনভাবে নকশা করা হয়েছে যেন এর মধ্য দিয়ে প্রতি ঘণ্টায় ৩০ হাজার সৈন্য চলাচল করতে পারে। তবে সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর দাবি এত বিরাট বাহিনী চলাচলের মতো সুড়ঙ্গ তৈরি করা অসম্ভব।

এর আগে ১৯৯০ সালে সর্বশেষ একটি সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়া যায়। তবে গত ২০১৪ সালে দুই দেশের সীমান্তবর্তী এলাকায় সুড়ঙ্গের খোঁজ করেছিল দক্ষিণ কোরিয়া।

১৯৭৪ সালে প্রথম দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্তের ভেতর একটি সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়া যায়। সুড়ঙ্গের বিষয়ে তদন্ত করার সময় বোমা হামলায় নিহত হন একজন মার্কিন কর্মকর্তা এবং একজন দক্ষিণ কোরীয় সৈনিক। সেই সময় বলা হয়েছিল, এই সুড়ঙ্গের ভেতর দিয়ে একসাথে দুই হাজার সৈন্য চলাচল করতে পারে।

এরপর ১৯৭৫ সালের মার্চ মাসে একটি এবং ১৯৭৮ সালের অক্টোবর মাসে আরো গভীর দুটি সুড়ঙ্গের সন্ধান পাওয়া যায়। এর মধ্যে একটি সুড়ঙ্গ এখন দর্শনীয় স্থান হিসেবে ব্যবহার করা হয়। যদিও সেখানে রয়েছে কড়া প্রহরা।

সূত্র: ডেইলি মেইল