মুখে আল্লাহর নাম আর শরীরে অর্ধনগ্ন পোষাক

allah-meherbanব্যাপার টা নিয়ে লিখবো কিনা ঠিক বুঝে উঠতে পারছি না। কিছুদিন আগেই আমি বাংলাদেশ ব্যান্ড নিয়ে আর ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি আমাদের ঝুকে যাওয়া নিয়ে লিখেছিলাম। এখন সম্প্রতি একটা বিষয় এর প্রতি আমি খুবই অবাক। ভারতীয় বাংলা একটা মুভি বস ২ যেটা জীৎ অভিনিত বস এর পরের সিকুয়েল। কিন্তু এবার এই মুভি বস ২ বাংলাদেশের জাজ মাল্টিমিডিয়ার যৌথ প্রযোজনায় তৈরি হচ্ছে। মুভিতে একটা গান দেখলাম যাকে আমরা প্রত্যেক সিনেমার অপরিহার্য অংশ হিসেবে বিবেচনা করি, অর্থাৎ যাকে বলা হয় আইটেম গান। গানটার টাইটেল “আল্লাহ মেহেরবান”। প্রশ্ন হলো আল্লাহর নাম নিয়ে আইটেম গান কিভাবে হতে পারে?

গানের শুধু নামই না, পুরো গানের কথাতেই সেখানে সৃষ্টীকর্তা কে মেনে চলা, সৎ পথে চলার কথা বলা আছে। কিন্তু ওই সব কথা গুলোর সাথে খুব সুন্দর ভাবে মিল করে মিউজিক আর নাচের স্টেপ সিলেকশন করা হয়েছে। একটা হিন্দি গান আছে, সাইফ আলী খান আর ক্যাটরিনা কাইফ অভিনিত “ফ্যান্টম” মুভিতে। গানটার নাম “আফগান জালেবি”। এই গানটা সম্পুর্ণভাবে ঐ গানের কোরিওগ্রাফি থেকে নেওয়া তা সহজেই বোঝা যায়। জানিনা আমাদের দেশের সুনামধন্য একটা কোম্পানি এটা কিভাবে করলো। আমি মুভি জগত সম্পর্কে খুব একটা বুঝি না। তাদের বিজনেস, তাদের গ্ল্যামার, তাদের স্ট্যাটাস বুঝি না। এটা বলতে চাই এই ধরনের গান এমনিতেও আমাদের দেশের সংস্কৃতির সাথে যায় না। তবুও এই সংস্কৃতি আমরা অনেক আগেই গ্রহণ করে নিয়েছি। তারপর মুখে আল্লাহর নাম নিয়ে শরীরে আধুনিক অর্ধনগ্ন পোষাক এটা কেউই মেনে নিবে না।

গানটার প্রথমে দেখা যায় একটা মজলিশ এর মত এলাকা যেখানে টাকা দিয়ে কেনা মেয়েদের নাচ দেখতে আসে সবাই। অনেকটা আরব দেশের রূপকথার গল্পের মত করে সাজানো। নায়ক সেখানে যায় এবং নায়িকা তার শরীর প্রদর্শনী শুরু করে। সাথে মুখে আল্লাহর নাম নিয়ে নাহক কে আহবান করে। গানের সাথে শরীর দেখানোর মত এক অদ্ভুদ ভঙ্গিতে নাচ দেখা যায়। আইটেম গান টা আমরা ভারতীয় দের থেকে পেয়েছি। এবং এই গানের পোষাক, নাচের ধরন সবই পাশের দেশ থেকে নিয়ে সিনেমা হলে দর্শক কে আকর্ষণ করা হচ্ছে। এসব এখন এদেশে কোন ব্যাপার না। যেদেশে ধর্ষণের পর বাবা মেয়ে একসাথে ট্রেনের নিচে মাথা দিলে কেও কানে নেয় না। তাদের জন্য সামান্য গানে কোন যাই আসবে না। কিছুদিন পর বিয়ে বাড়ি, মানুষের ফোনে ফোনে, পিকনিকে এই গানটা বাজতে শোনা যাবে, তার সাথে সবাইকে নাচতেও দেখা যাবে। কেও কিছু বলবে না। বলবে তখন যখন আমি কোন কন্সার্ট দেখতে যাবো।

লিখেছেনঃ আহমেদ আবির