জাপান ভ্রমণ : দেখে আসুন শরতের রং বদল

japanআর কিছুদিন পরই বিদায় নিচ্ছে বর্ষাকাল। আসছে শরতকাল। এই শরতে ঘুরে আসতে পারেন জাপান থেকে। সেখানকার আওমোরি শহরে শরতে গাছের রং বদলের মতো আকর্ষণীয় বিষয়গুলো উপভোগ করতে পারবেন।

উল্লেখযোগ্য স্থান: শরতের রং বদল দেখতে আওমোরি জেলার কুরোইশি শহরের নাকানো ম্যাপল পর্বতে যাওয়া যায়। ম্যাপল গাছের হলুদ, কমলা ও লাল পাতা পাহাড়টা ঢেকে রেখেছে। ২০০ বছরের পুরনো ম্যাপল গাছটি আপনাদের অভ্যর্থনা জানাবে। এরপর দেখবেন ৫০০ বছরের পুরনো সিডর গাছ।

maple-treeম্যাপল গাছ: ১০০ রকমের বিভিন্ন ধরনের ম্যাপল গাছ এই পর্বতকে রাঙিয়ে তোলে। এলাকার স্থানীয় নেতারা ১৮০০ সালের দিকে কিয়োতো থেকে প্রায় ১০০ রকমের ম্যাপল গাছ এনে লাগিয়েছিলেন। এ অঞ্চলের ম্যাপল গাছের পাতার বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- এগুলোর কিনারায় তীক্ষ্ণ অংশের পরিমাণ কম। অন্যদিকে কিয়োতো থেকে এখানে নিয়ে আসা ম্যাপল গাছের পাতার কিনারার তীক্ষ্ণ অংশ চোখা হয়ে বাইরের দিকে বেরিয়ে থাকে।

বিশেষত্ব: এখানে এতো বেশি ধরনের আপেল পাওয়া যায় যে, আওমোরি অঞ্চলের মানুষ তা নিয়ে গর্ব করে।

maple-travelকিভাবে যাবেন: বাংলাদেশ থেকে অবশ্যই আগে জাপানে গিয়ে পৌঁছতে হবে। তারপর কুরোইশি শহরে যেতে হলে টোকিওর হানেদা বিমানবন্দর থেকে আওমোরি বিমানবন্দর পর্যন্ত যেতে হবে। টোকিও স্টেশন থেকে শিনকানসেন বুলেট ট্রেনে করেও এই শহরে আসা যায়। শিনকানসেন বুলেট ট্রেনে টোকিও স্টেশন থেকে শিন-আওমোরি স্টেশন পর্যন্ত যাওয়া যায়। উভয় স্থান থেকে কুরোইশি যেতে গাড়িতে আরো প্রায় ৪০ মিনিট লাগবে।