বৃত্তি নিয়ে ৩০ সরকারি কর্মকর্তা জাপানে

japanবৃত্তি নিয়ে উচ্চশিক্ষার্থে ৩০ জন সরকারি কর্মকর্তা জাপানে এসেছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ দূতাবাস, টোকিওর বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে তাদের স্বাগতম ও শুভেচ্ছা জানান জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।

জাপানিজ গ্রান্ট এইড ফর হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট (জেডিএস) স্কলারশিপ প্রোগ্রামের মাধ্যমে ২০০১ সাল থেকে প্রতি বছর বাছাই করে বাংলাদেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের এ বৃত্তি প্রদান করে আসছে। চালু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ৩২৮ জন জেডিএস ফেলো এই বৃত্তি পেয়েছেন যাদের মধ্যে ২৪০ জন ইতোমধ্যে কোর্স শেষ করে দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করছেন।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি), বাংলাদেশ ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন সেন্টার (জাইস) এই প্রোগ্রামের বাস্তবায়ন সংস্থা হিসেবে কাজ করছে।

এ বছর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ৯, বাংলাদেশ ব্যাংকের ১২, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ৪ জন এবং অর্থ মন্ত্রণালয়,পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, গণপূর্ত বিভাগ, স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগ ও পুলিশ থেকে ১ জন করে কর্মকর্তা জাপানের ইয়ামাগুচি, মেইজি, সুকুবা, হিতুতসুবাশি, রিতসুমিকান, হিরোশিমা, কিউশু, ইউকোহামা এবং আইইউজে বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি, গভর্নেন্স স্টাডিজ, ইন্টারন্যাশনাল রিলেশন, পরিবেশ বিজ্ঞান, আইন ইত্যাদি বিষয়ে দুই বছরের মাস্টার্স কোর্সে অংশগ্রহণ করবেন।

রাষ্ট্রদূত বৃত্তিপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের স্বাগত জানান এবং তাদেরকে বাংলাদেশের শুভেচ্ছা-দূত হিসেবে কাজ করার আহ্বান জানান। লেখাপড়ার পাশাপাশি সবাইকে তিনি জাপানি জীবন ও কর্ম পদ্ধতি থেকে শিখতে এবং তা নিজ, পারিবারিক ও রাষ্ট্রীয় কাজে প্রয়োগের পরামর্শ দেন।

দূতাবাসের বাণিজ্যিক কাউন্সেলর হাসান আরিফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন দূতাবাসের ইকোনমিক মিনিস্টার ড. শাহিদা আক্তার ও জাইস প্রতিনিধি নানামি হিদা। এ সময় দূতাবাসের সব কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।