Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

ঢাবিতে শিক্ষার্থীদের লুঙ্গি পরে ক্লাস, ঘুরাঘুরি-আড্ডা

du-lungiবাঙালিদের ঐতিহ্যবাহী একটি পোশাক লুঙ্গি। এটি আরামদায়ক পোশাক বটেও। একসময় লুঙ্গি পরে কোট-কাচারি, অফিস-আদালতে গেলেও আধুনিক সময়ে এসে লুঙ্গির ব্যবহার হয়ে পড়েছে সীমাবদ্ধ। ঘরে অনেকে লুঙ্গি পরলেও বাইরে কমই দেখা যায় লুঙ্গি পরতে।

chardike-ad

স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা অফিস-আদালত কোথাও এখন লুঙ্গির প্রচলন নেই। লুঙ্গি পরে এসব স্থানে গেলে মানুষ বাঁকা চোখে তাকায়। তাইতো এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী প্রচলিত এই ধারাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আয়োজন করেছে ‘লুঙ্গি মহফেল ২০১৯’।

du-lungiবুধবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের কয়েকজন শিক্ষার্থীর উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। এদিন সকাল থেকে বিভিন্ন বিভাগের ছাত্ররা লুঙ্গি পড়ে ক্লাসে আসে। ক্লাস শেষ করে জড়ো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার সামনে। ঘুরে বেড়ান ক্যাম্পাসে, দেন আড্ডা।

‘আরামদায়ক পোশাক লুঙ্গি’, ‘ক্লাসে লুঙ্গি’, ‘জাতীয় পোশাক লুঙ্গি’ এমন নানা স্লোগান দিয়ে তারা মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গা প্রদক্ষিণ করেন। পরে মিছিলটি এফবিএস অনুষদের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

du-lungi‘লুঙ্গি মহফেল ২০১৯’-এর অন্যতম আয়োজক গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ছাত্র নেহাল মুহাম্মাদ বলেন, লুঙ্গি পরে আজ প্রথম ক্লাস করতে গেলে শিক্ষকদের কেউ কেউ একটু অবাক হয়েছিলেন। পরে কারণ জিজ্ঞেস করলে আমরা উনাদের বুঝিয়ে বলি। ফলে তারা বিষয়টি মেনে নিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, লুঙ্গি আমাদের দেশীয় পোশাক। কিন্তু এখন অনেকে এটাকে ক্ষ্যাত বলেন। আমরা মূলত সেই বদ্ধমূল ধারণা থেকেই বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেছি। এই আয়োজনে মেয়েদের জন্য কোনও ধরনের ড্রেসকোড রাখা হয়নি। তবে এতে মেয়েদেরও অংশ নিতে দেখা গেছে।