Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

কোরিয়ায় সদ্য ইউনিভার্সিটি গ্র্যাজুয়েটরা নিম্নবেতনে চাকুরী এবং বেকারত্বের মুখোমুখি

সদ্য ইউনিভার্সিটি হতে গ্র্যাজুয়েটপ্রাপ্তরা ১.৫ মিলিয়ন ওঅনের(১টাকা=১৫ ওঅন প্রায়) বেশী উপার্জন করতে পারছে না। সম্প্রতি একটি জরিপে এই তথ্য পাওয়া গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে কয়েক দশক মিলিয়ন টিউশন ফি জমা দিয়ে ডিগ্রী অর্জন করার পরও তাদের একজন হাইস্কুল পাসের সমমান বেতন নিয়ে কিংবা একজন ট্যাক্সি ড্রাইভারের সমান বেতন নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। তথাপি গ্র্যাজুয়েটদের প্রায় অর্ধেক যারা চাকুরীর সন্ধান মেলাতে পেরেছেন তারা নিজেদেরকে ভাগ্যবান বলে মনে করছেন।

সম্প্রতি একজন ‘ল’মেকার ই জায়ে-সান ৩২১৭৪০জন গ্র্যাজুয়েটদের নিয়ে চুছন ইলবো নামক পত্রিকায় এই জরিপ করেছেন। জরিপে দেখা যায় যে, যারা মিলিটারি সার্ভিসে গিয়েছেন কিংবা স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ভর্তি হয়েছেন তারা ব্যতীত এই আগস্ট পর্যন্ত ২৮০,০০০ চাকুরী সন্ধানকারীর মধ্যে মাত্র ৫১শতাংশ চাকুরী পেতে সক্ষম হয়েছেন। যার মধ্যে ৪৮.৯ শতাংশ তাদের কলেজ ডিগ্রী সম্পন্ন করার পর প্রায় ২ মিলিয়ন ওঅন বেতনের নতুন চাকুরী পেয়েছেন, যদিও তাদের সিংহভাগই পার্টটাইম কিংবা ইন্টার্ন হিসেবে কাজ করছেন। আবার তাদের মধ্যে প্রায় ১৩.৪ শতাংশ রয়েছেন যারা ১মিলিয়নের কম বেতন পেয়েও কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন। কনকুক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর কিম উন সিক বলেন, সম্প্রতি অনেক ইউনিভার্সিটির গ্র্যাজুয়েটরা চাকুরী খুঁজে পাচ্ছেনা কিংবা  কোনরকম একটা চাকুরী পেলেও অনেক নিম্ন বেতনে কাজ করতে হচ্ছে। তিনি গ্র্যাজুয়েটদের নৈতিক সমস্যাকে উপেক্ষা করে এটিকে একটি সামাজিক কাঠামোগত সমস্যা বলে আখ্যা দিয়েছেন।