Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

মার্কিন হুমকির মুখে সামরিক মহড়া চালাচ্ছে ভেনিজুয়েলা

venijuelaমার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভেনিজুয়েলার বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ নেয়ার হুমকি দেয়ার পর দু’দিনব্যাপী সামরিক মহড়া শুরু করেছে কারাকাস। শনিবার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো এ মহড়া উদ্বোধন করেন। এতে দেশটির দুই লাখ সেনা এবং শত শত ট্যাংক ও যুদ্ধবিমান অংশ নিচ্ছে। এ ছাড়া, এই মহড়ায় যোগ দিয়েছেন সাত লাখ রিজার্ভ সেনা ও বেসামরিক মিলিশিয়া বাহিনীর সদস্য।

প্রেসিডেন্ট মাদুরো উদ্বোধনি ভাষণে বলেন, ভেনিজুয়েলার জনগণ ও সেনাবাহিনী যেকোনো মূল্যে তাদের দেশের সীমান্ত ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চলতি মাসের গোড়ার দিকে বলেছিলেন, তিনি ভেনিজুয়েলার ‘একনায়কতান্ত্রিক’ সরকারের বিরুদ্ধে শক্ত পদক্ষেপ নেবেন। ট্রাম্প আরো বলেন, ভেনিজুয়েলাকে শাস্তি দেয়ার জন্য ওয়াশিংটনের হাতে সামরিক ব্যবস্থাসহ অনেকগুলো ব্যবস্থা রয়েছে।

ভেনিজুয়েলা সরকার চলমান সামরিক মহড়ায় বেসামরিক নাগরিকদের অংশগ্রহণের আহ্বান জানানোর পর সাধারণ জনগণকে সেনাবাহিনীর রেজিস্ট্রেশন সেন্টারে নিজেদের নাম তালিকাভুক্ত করার জন্য লাইন ধরে দাঁড়াতে দেখা গেছে।

দেশটির রাষ্ট্রীয় টিভি’র ঘোষণায় বলা হয়েছে, আমেরিকার শত্রুতামূলক হুমকির মোকাবিলায় ভেনিজুয়েলার ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সি প্রত্যেক নাগিরককে দেশ প্রতিরক্ষায় এগিয়ে আসতে হবে।

chardike-ad