cosmetics-ad

বাংলাদেশে যৌথ বিনিয়োগে গাড়ি বানাতে চায় জাপান

car

বাংলাদেশে গ্যাসচালিত ইঞ্জিনের গাড়ি উৎপাদন শিল্পে যৌথ অংশীদারিত্বে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাপান। এ ছাড়া ইলেকট্রনিক হোম অ্যাপ্লায়েন্স (বৈদ্যুতিক গৃহস্থালি সরঞ্জাম) শিল্পেও বিনিয়োগে উৎসাহী জাপানের উদ্যোক্তারা।

মঙ্গলবার শিল্প মন্ত্রণালয়ে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুনের সঙ্গে বৈঠককালে এসব কথা বলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসিও ইজুমি। এ সময় শিল্প সচিব মো. আবদুল হালিমসহ শিল্প মন্ত্রণালয় ও জাপান দূতাবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে বাংলাদেশের শিল্প খাতের জাপানি বিনিয়োগ, প্রযুক্তি স্থানান্তর, অটোমোবাইল শিল্প খাতে জাপানের কারিগরি সহায়তাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। বর্তমানে জাপানি প্রতিষ্ঠান হোন্ডার সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগে গত নভেম্বর থেকে বাংলাদেশে মোটরসাইকেল উৎপাদন হচ্ছে। এই মোটরসাইকেল এখন দেশের বাজারে বিক্রি হচ্ছে।

জাপানের রাষ্ট্রদূত বলেন, দ্বিপক্ষীয় অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে অনেক সুযোগ রয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগাতে এ দেশে গাড়িসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী জাপানের উদ্যোক্তারা। তিনি এ দেশের শ্রমশক্তিকে শিল্পায়নের সম্ভাবনা হিসেবে বিবেচনা করেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, এ দেশের ক্রেতাদের মধ্যে টয়োটাসহ জাপানি ব্র্যান্ডের গাড়ির প্রতি আস্থা ব্যাপক। এখন গ্যাসোলিন ইঞ্জিন কারসহ জাপানি ব্র্যান্ডের মোটর গাড়ি, কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প, চামড়াজাত পণ্য ও কাগজ শিল্পে জাপানি উদ্যোক্তারা বিনিয়োগে এলে তাদের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন শিল্পমন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, জাপানি বিনিয়োগকে বরাবরই বাংলাদেশ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধু বহুমুখী সেতু নির্মাণ, পদ্মা সেতুর প্রাক-সমীক্ষা, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ বিভিন্ন প্রকল্পে জাপান অর্থায়ন করেছে। মোবাইল এক্সেসরিজ শিল্পেও জাপান বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ফানির্চার শিল্প গড়বে সৌদির ডাইমেনশন্স :মন্ত্রণালয়ে শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে এক বৈঠকে বাংলাদেশে একটি মেগা ফার্নিচার ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্ডাস্ট্রি গড়ে তুলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে সৌদি আরবের বিখ্যাত উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশন্স। এ ছাড়া প্রতিষ্ঠানটি পেট্রো কেমিক্যাল, চিনিসহ অন্যান্য সম্ভাবনাময় শিল্প খাতেও বিনিয়োগের আগ্রহ দেখিয়েছে।

সৌদি ইঞ্জিনিয়ারিং ডাইমেনশন্সের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ এন হিজির নেতৃত্বে সৌদি আরবের এক ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দল শিল্পমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠককালে এসব কথা বলেন। এ সময় শিল্প সচিবসহ বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল করপোরেশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনের (বিসিআইসি) চেয়ারম্যান মো. হাইয়ুল কাইয়ুমসহ সৌদি প্রতিনিধি দলের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সৌজন্যে- সমকাল