Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

প্রবাসী শ্রমিকদের কম টাকায় ই-পাসপোর্ট দেবে সরকার

e-passportপ্রবাসী শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের কম টাকায় ই-পাসপোর্ট দেবে সরকার। বাংলাদেশের একজন নাগরিকের বৈধ পাসপোর্ট করার ক্ষেত্রে নির্ধারিত ফি-এর টাকার পরিমাণ এতদিন সকলের জন্য সমান থাকলেও এবারই প্রথম বিদেশে কর্মরত শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের জন্য অপেক্ষাকৃত কম টাকায় পাসপোর্ট পাওয়ার সুযোগ দিচ্ছে সরকার।

চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি (বুধবার) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর ই-পাসপোর্টের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (১৯ জানুয়ারি) সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব (জন নিরাপত্তা) মোস্তাফা কামাল উদ্দিন বলেন, এবারই প্রথমবারের মতো প্রবাসী শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের জন্য অপেক্ষাকৃত কম টাকায় পাসপোর্ট করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, এতদিন একজন বড় ব্যবসায়ী যে টাকায় পাসপোর্ট করতেন গরীব মানুষও সমপরিমাণ টাকা ফি বাবদ জমা দিতেন। তবে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় প্রবাসী শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের জন্য কম টাকায় পাসপোর্ট করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

কোন ই-পাসপোর্টের ফি কত?: ৪৮ ও ৬৪ পৃষ্টার দুই ধরনের পাসপোর্ট প্রদান করা হবে। ৫ বছর ও ১০ বছর মেয়াদী পাসপোর্টে সাধারণ (১৫ দিন), জরুরি (৭ দিন) ও অতি জরুরি (২ দিন) ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ৪৮ পৃষ্টার ৫ বছর মেয়াদী সাধারণ পাসপোর্টের ফি ৩৫০০ টাকা, জরুরি ৫ হাজার ৫০০ টাকা এবং অতি জরুরি বাবদ সাড়ে ৭ হাজার টাকা ফি দিতে হবে। এছাড়া ৪৮ পৃষ্টার ১০ বছর মেয়াদের ক্ষেত্রে সাধারণ, জরুরি ও অতি জরুরি ফি যথাক্রমে ৫ হাজার, ৭ হাজার ও ৯ হাজার টাকা।

একইভাবে ৬৪ পৃষ্টার ৫ বছর মেয়াদী সাধারণ পাসপোর্টের ক্ষেত্রে ৫ হাজার ৫০০ টাকা, জরুরি ৭ হাজার ৫০০ এবং অতি জরুরি বাবদ ১০ হাজার ৫০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। আর ৬৪ পৃষ্টার ১০ বছর মেয়াদের ক্ষেত্রে সাধারণ, জরুরি ও অতি জরুরি ফি যথাক্রমে ৭ হাজার, ৯ হাজার ও ১২ হাজার টাকা।

প্রবাসী শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের জন্য এ ফি অন্যান্যদের চেয়ে কম হবে। তবে কত টাকা কমবে তাৎক্ষণিকভাবে সেটা জানাতে পারেননি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (জননিরাপত্তা) সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দিন।