cosmetics-ad

করোনার প্রভাবে বিমানের অর্ধেক ফ্লাইট বন্ধ

biman-bangladesh

করোনাভাইরাসের প্রভাবে আকাশপথে যাত্রী কমেছে। আর এ কারণে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ১০টি আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইটের সংখ্যা প্রায় অর্ধেকে নামিয়ে এনেছে। বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোকাব্বির হোসেন সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সোমবার থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস ইতোমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। তাই কুয়ালালামপুর, কাঠমান্ডু, কলকাতা, দিল্লি, ব্যাংকক, সিঙ্গাপুর, দোহা, জেদ্দা, মদিনা, কুয়েত রুটে ফ্লাইটের সংখ্যা কমিয়ে দেয়া হয়েছে। আগে এসব রুটে প্রতি সপ্তাহে ১৪২টি ফ্লাইট পরিচালনা করত বিমান বাংলাদেশ। এখন থেকে এই ১০ রুটে সপ্তাহে ৬৮টি ফ্লাইট চলবে।

মোকাব্বির হোসেন আরও বলেন, বর্তমান পরিস্থিতির পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। যাত্রীরা চাইলে টিকিট ফেরত দিয়ে টাকা ফেরত নিতে পারবে। আবার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ভ্রমণ করতে পারবেন।

এর আগে করোনাভাইরাস ঠেকানোর পদক্ষেপ হিসেবে ১৪ দেশের নাগরিকদের কাতারে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কাতার সরকার। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী, বাংলাদেশ থেকে কাতারের দোহাগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, রিজেন্ট এয়ারলাইন্স ও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটগুলো বাতিল ও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স-এর একটি সূত্র ফ্লাইট বন্ধের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে একজন নারী ও দুজন পুরুষ। এর মধ্যে দুজন ইতালিফেরত। এদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে। এ তিনজন ছাড়া আরও দুজনকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

রোববার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) সম্মেলন কক্ষে করোনাভাইরাস সম্পর্কিত নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে আইইডিসিআর পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য জানান।