কোটি টাকা আত্মসাতের দায়ে ইসলামী ব্যাংকের সুপারভাইজার গ্রেফতার

islamibank-mahbubকোটি কোটি টাকা আত্মসাৎকারী বহুল আলোচিত ইসলামী ব্যাংকের সুপারভাইজার মাহবুবুল আলম নাঈমকে অবশেষে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ব্যাংকের গ্রাহকরা তাকে আটক করে ব্যাংক কর্মকর্তাদের মাধ্যমে পুলিশে হস্তান্তর করেছে।

বৃহস্পতিবার রাতে নেছারাবাদ থানায় মামলা দায়ের করেছেন ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, কৌড়িখাড়া শাখার ব্যবস্থাপক মো.আবু জাফর খান। কেবলমাত্র ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের গ্রাহকদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী দুই কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে নাঈম। এমন অভিযোগ করেছেন শাখা ব্যবস্থাপক।

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের বিন্না গ্রামের শাহ আলম ফকিরের ছেলে মাহবুবুল আলম নাঈম ২০০৭ সালে ২ অক্টোবর ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ এর কৌড়িখাড়া শাখায় ক্ষুদ্র ব্যবসা বিনিয়োগ প্রকল্পে (এসবিআইএস) সুপারভাইজার হিসেবে নিয়োগ পান। তিনি ব্যাংকের শাখায় গ্রাহকদের নামে বিনিয়োগ পাশ করিয়ে নানা নিয়মকানুন ও টালবাহানা করে গ্রাহকদের সম্পূর্ণ টাকা না দিয়া অথবা ফর্মে টাকার অংক না বসিয়ে গ্রাহকদের স্বাক্ষর নিয়ে টাকা অত্মসাৎ করে আসছিল। ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে গ্রাহকদের মাধ্যমে বিষয়টি ব্যাংকের কর্মকর্তাদের দৃষ্টিগোচর হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে আত্মসাৎকৃত টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলতে থাকে।

মাহবুবুল আলম নাঈম পালিয়ে যেতে পারে এমন আশংকা থেকে বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) গ্রাহকরা তাকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষকে অবহিত করলে শাখা ব্যবস্থাপক মো. আবু জাফর নাঈমকে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে তিনি দুই কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ এনে নাইমের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। তবে ভুক্তভোগী গ্রাহক ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে নাইমের আত্মসাৎ করা টাকার পরিমান তিন কোটি ছাড়িয়ে যাবে। পুলিশ নাইমকে ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে।