cosmetics-ad

সিডনিতে বাঙালিদের শতকণ্ঠে ‘আমার সোনার বাংলা’

austrelia

মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সিডনির ল্যাকান্বাতে শতকণ্ঠে জাতীয় সঙ্গীত গেয়েছেন প্রবাসী বাঙালিরা। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৬টায় এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশিরা স্বতস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করে। সাংবাদিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ প্যারেড গ্রাউন্ডে উপস্থিত হন।

দেশপ্রেম ধারণ করে সিডনি প্রবাসী বাংলাদেশি ডব্লিউ রুবেল এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সিডনির ল্যাকান্বাবাসী শোনে বাঙালির প্রাণের সুর ও হৃদয়ের গভীরতম অনুভূতির সেই কথাগুলো।

২৫ মার্চের মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া ধ্বংসস্তূপের মধ্য থেকে উঠে দাঁড়িয়ে বাঙালি এই দিন থেকে মুক্তিযুদ্ধ ও দেশ স্বাধীন করার শপথ গ্রহণ করে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে প্রতিটি বাঙালির মনে নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশের বীজ রোপিত হয়। শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। স্বাধীন বাংলার অবরুদ্ধ রাজধানী ঢাকা ছাড়া সমগ্র বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা দিনে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলিত হয়।

austrelia১৯৭১ সালে ৩ মার্চ পল্টন ময়দানে অনুষ্ঠিত জনসভা শেষে ঘোষিত ইশতেহারে এই গানকে জাতীয় সঙ্গীত হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল মুজিবনগরে স্বাধীন বাংলাদেশের সরকারের শপথ অনুষ্ঠানে প্রথম জাতীয় সঙ্গীত হিসেবে গাওয়া হয়।

১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ মধ্যরাতে বর্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাঙালি জাতির কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ করে দেয়ার লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে অপারেশন সার্চ লাইটের নামে নিরস্ত্র বাঙালিদের ওপর অত্যাধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলার মাধ্যমে বাঙালি জাতির জীবনে যে বিভীষিকাময় যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়েছিল। দীর্ঘ নয় মাসে মরণপণ লড়াইয়ের মাধ্যমে বাংলার দামাল সন্তানেরা এক সাগর রক্তের বিনিময়ে সে যুদ্ধে বিজয় লাভ করে স্বাধীনতার লাল সূর্য ছিনিয়ে আনে।