sentbe-top

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮২.২০ শতাংশ

sscএসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। পাসের হার ৮২.২০। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন। আজ সোমবার সকাল ১১টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল প্রকাশ করেন। ফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনলাইনে যুক্ত হন। তিনি উত্তীর্ণদের অভিনন্দন জানান।

এবার এসএসসি পরীক্ষায় ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছেন। এদের মধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র।

গতবছর এ পরীক্ষায় ৭৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ শিক্ষার্থী শিক্ষার্থী পাস করেছিল, যাদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। ২০১৭ সালে ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল, যাদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিল ১ লাখ ৪ হাজার ৭৬১ জন।

dipumoniএবার এসএসসিতে সাধারণ শিক্ষা বোর্ডগুলোর তত্ত্বীয় পরীক্ষা ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি শেষ হয়। ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৭ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ৫ মার্চ শেষ হবে। মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের তত্ত্বীয় পরীক্ষা ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি শেষ হয় এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হয় ৬ মার্চ।

যেভাবে জানা যাবে ফলাফল: এসএসসি ও সমমানের ফল জানতে যেকোনো মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে এসএসসি লিখে বোর্ডের প্রথম তিনটি অক্ষর টাইপ করে রোল নম্বর ও সন লিখে ১৬২২২তে পাঠাতে হবে। ফিরতি মেসেজেই ফল জানা যাবে। উদাহরণস্বরূপ message option-SSC <2019> লিখে 16222 এ send করুন। এর জন্য চার্জ প্রযোজ্য হবে ২.৪৪ টাকা।

এ ছাড়া শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট http://www.educationboardresults.gov.bd থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফল ডাউনলোড করতে হবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো মুদ্রিত কপি সরবরাহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দফতর থেকে ফলাফলের মুদ্রিত কপি সংগ্রহ করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি সূত্রে জানা গেছে।

সাব-কমিটি সূত্র জানায়, মোবাইলের মেসেজ অপশন ছাড়াও বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটগুলোতে বিনামূল্যে বা বিনা ফি-তে ফলাফল জানা যাবে এবং ফল ডাউনলোড করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষা আবেদন আগামীকাল থেকে: প্রকাশিতব্য ফলে কোনো পরীক্ষার্থী সংক্ষুব্ধ হলে ফলাফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করতে পারবে। এ জন্য টেলিটক থেকে আগামীকাল ৭ মে থেকে ১৩ মে পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে বলে গতকাল নয়া দিগন্তকে জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক।

ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে। প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। যেসব বিষয়ের দু’টি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে, সেসব বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দু’টি পত্রের জন্য মোট ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে। একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে, এ ক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।