sentbe-top

জনপ্রিয় কিছু ওয়েব সাইটের সেকাল-একাল

ইন্টারনেটের জন্মের পর থেকে সাম্প্রতিকালে জনপ্রিয় ওয়েব সাইটেরগুলোর ব্যাপক উন্নতি সাধিত হয়েছে। ডিজাইনের  ক্ষেত্রে এসেছে আমূল পরিবর্তন। ফেসবুক, গুগল, টুইটার, ইউটিউব, ইয়াহু, অ্যাপল, ইবে, লিংকডইন, ফ্লিকার- এই শীর্ষ জনপ্রিয় সাইটগুলো দেখতে খুবই আকর্ষণীয়। কিন্তু শুরুর দিকে সাইটগুলো দেখতে বর্তমানের মতো এতটা নান্দনিক ছিল না।

এসব সাইট শুরুর দিকে দেখতে ছিল একেবারেই সাধারণ। জনপ্রিয় এই ওয়েব সাইটগুলোর সেকাল এবং একালের আউটলুকিং নিয়েই আজকের পরিবেশনা।

google-oldগুগলঃ যুক্তরাষ্ট্রে অনলাইনে যাবতীয় অনুসন্ধানের তিন ভাগই সম্পন্ন হয় গুগলের মাধ্যমে। ১৯৯৬ সালে ধূসর ব্যাকগ্রাউন্ডে যাত্রা শুরু করলেও, বর্তমানে গুগলের ব্যাকগ্রাউন্ড সাদা এবং সম্পূর্ণ পরিস্কার।

 

facebook-oldফেসবুক: শুরুতে ফেসুকের নাম ছিল দ্য ফেসবুক এবং সেসময় এটি কেবলমাত্র হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ জন্য তৈরি করা হয়েছিল। আর বর্তমানে পুরো বিশ্বে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১.৫ বিলিয়ন।

 

twitter-oldটুইটার: ২০০৬ সালে জ্যাক ডর্সি এবং আরও তিনজন মিলে প্রতিষ্ঠা করেন টুইটার। ডর্সি এখনও টুইটারের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

 

yahoo-oldইয়াহু: শুরুতে ইয়াহুতে মূলত বিভিন্ন ইউআরএল-গুলোর তালিকা ছিল। বর্তমানে নানা ধরনের সেবা দিচ্ছে ইয়াহু। 

 

youtube-oldইউটিউব: পেপ্যালের সাবেক তিন কর্মী ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠা করে ইউটিউব। ২০০৬ সালে ১.০৭ বিলিয়ন ডলারে ইউটিউব কিনে নেয় গুগল।

 

linkedinলিংকডইন: পেপ্যাল এবং ইয়াহুর কয়েকজন সাবেক কর্মী প্রতিষ্ঠা করেন লিংকডইন। বর্তমানে ২০টি ভাষায় ব্যবহার করা যাচ্ছে এই সাইটটি।

 

flickrফ্লিকার: ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ফটো শেয়ারিংয়ের এই সাইটিটি। বর্তমানে ব্যবহারকারী কর্তৃক প্রতিদিন ৩.৫ মিলিয়ন ফটো আপলোড হয়ে থাকে এই সাইটটিতে।

 

ebay-oldইবে: ১৯৯৯ সালে ইবের প্রতিষ্ঠাতা নিজের অবসর সময় ব্যয় করতে এই সাইটটি তৈরি করেছিলেন। অথচ বর্তমানে এই সাইটটির বাজারমূল্য ৪০ বিলিয়ন ডলারেরও বেশি।

 

apple-oldঅ্যাপল: ১৯৯৬ সালে যাত্রা শুরু করা এই সাইটটি নিজেদের আধুনিক পণ্যের মতোই অনেক আধুনিকভাবে বদলে গেছে।

sentbe-top