sentbe-top

সাইকেল চালিয়ে বরযাত্রা

marriage-by-cycleমৌলভীবাজার শহরে হঠাৎ করেই সবার নজরে আসে একটি সাইকেল র‍্যালি। প্রায় একই ধরনের সাজে অর্ধশতাধিক বাইসাইকেল চালক। তাদের দেখে কৌতুহল বাড়ে রাস্তার পাশে থাকা দোকানি ও পথচারীদের।

এ সময় অনেকের মনেই প্রশ্ন আসে, তাঁরা কারা? কী বা করতে এসেছেন? মৌলভীবাজার শহরের সিলেট সড়ক হয়ে কুসুমবাগ এলাকা পাড়ি দেওয়ার সময় সাইকেল র‍্যালিটি যানজটে আটকা পড়লে জানা যায় এই র‌্যালির মূল রহস্য।

অনেকগুলো সাইকেলের ভিড়ে সেই র‍্যালিতে ছিলো একটি বড় চাকার সাইকেল। সেই সাইকেলে থাকা পাগড়িওয়ালা একজন মিষ্টি হেসে বলেন, ‘আমি নিজেই বর, কনে আনতে যাচ্ছি।’ সঙ্গে থাকা কয়েকজন বরযাত্রী হাসিমুখে সবার কাছে দোয়া চান।

বুধবার দুপুরে জেলা শহরের সাদিয়া কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হলো এমন ভিন্ন ধরনের বাইসাইকেল র‌্যালির বিয়ের অনুষ্ঠান।

জানা গেছে, শহরের বড়হাটের মরহুম আশরাফ আলী ও রুবেনা সুলতানা দম্পতির ছেলে শহরের সাদী মোবারক ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টের স্বত্বাধিকারী আহমদ আলী ছায়েমের সঙ্গে সদর উপজেলার মনুমুখ ইউনিয়নের মোজাফরাবাদ গ্রামের সজিব মিয়া ও হাজেরা বেগম দম্পতির মেয়ে সোনিয়া সুলতানা রুমার বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

বর আহমদ আলী ছায়েম মুঠোফোনে জানান, এমন আয়োজনের ইচ্ছে আগে থেকেই ছিল। মৌলভীবাজার সাইক্লিং কমিউনিটির আমার কাছের মানুষেরা তা বাস্তবায়নে আমাকে সহযোগিতা করেছেন।

এ সময় ছায়েম হেসে বলেন, ‘আমার সম্পূর্ণ ইচ্ছা পূরণ হয়নি। কারণ নতুন বউকে সাইকেলে করে নিয়ে আসতে পারিনি। তাৎক্ষণিকভাবে অনুষ্ঠান হওয়ায় বাইসাইকেলে সেই ব্যবস্থা করতে পারিনি।’ তিনি আশা করেন, সাইক্লিংয়ের মাধ্যমে যুব সমাজ ভালো কাজে এগিয়ে যাবে।

মৌলভীবাজার সাইক্লিং কমিউনিটির অ্যাডমিন ইমন আহমেদ ও রাফসান রাজা জাওয়াদ জানান, বর তাঁদের সাইক্লিং কমিউনিটির নেতা। তাদের স্লোগান হচ্ছে, ‘সু-স্বাস্থ্যের জন্য সাইক্লিং’। পরিবেশবান্ধব সাইক্লিংয়ে তাঁরা সব সময় তরুণ ও যুব সমাজকে উৎসাহিত করে থাকেন। তাঁদের লক্ষ্য তরুণ ও যুব সমাজকে মাদকমুক্ত করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করা। সাইক্লিংয়ের মাধ্যমেই তরুণ প্রজন্মকে আকৃষ্ট করে তাঁরা ভালো কাজে নিয়োজিত করতে চান। জেলার মধ্যে এই ধরনের সাইকেল র‍্যালি এটিই প্রথম বলে তাঁরা দাবি করেন।

এ ধরনের ব্যতিক্রমী বরযাত্রার র‌্যালিকে ‘বিবাহ র‌্যালি’ নাম দিয়ে শহরের লোকজন নানারকম মুখরোচক কথাবার্তায় মেতে ওঠেন।

সৌজন্যে- এনটিভিবিডি

sentbe-top