cosmetics-ad

স্ত্রীর তালাকের নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল স্বামীর

tangail-news

টাঙ্গাইলের মধুপুরে স্ত্রীর তালাকের নোটিশ পেয়ে খুশিতে দুধ দিয়ে গোসল করলেন স্বামী। সোমবার রাতে উপজেলার জাঙ্গালিয়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। শুধু গোসল নয়, আনন্দে দুই শতাধিক পড়শিকে বাড়িতে নিমন্ত্রণ করে ভুরিভোজও করানো হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, গ্রামের নয়ন আলীর ছেলে আলমকে (১৮) একই গ্রামের মো. আনোয়ার হোসেনের মেয়ে রিনা আক্তার (১৬) তালাকের নোটিশ পাঠালে আলম এই কাণ্ড ঘটান। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দুধ দিয়ে আলমের গোসল করার ছবি ভাইরাল হলে পুরো উপজেলায় তোলপাড় শুরু হয়।

জানা গেছে, তিন মাস আগে রিনাকে ভালোবেসে বিয়ে করেন আলম। ছেলে-মেয়ের চাপে পড়েই বাবা-মা এই বাল্য বিয়েটি দিয়েছিলেন। কিন্তু বিয়ের এক মাস পার হতে না হতেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে স্বামী আলমকে তালাকের নোটিশ পাঠান রিনা। নোটিশ পেয়ে খুশিতে ৩ মণ মহিষের দুধ কিনে সোমবার আলমকে গোসল করায় তার পরিবারের সদস্যরা। একই সঙ্গে দুপুরে গ্রামের দুই শতাধিক মানুষকে ভুরিভোজও করানো হয়।

এ বিষয়ে আলম বলেন, এর আগে গোপনে আরেকটি বিয়ে হয়েছিল রিনার। ওই বিয়ের বিষয়টি তার পরিবার গোপন রেখেছিল। তালাকের মাধ্যমে গ্রামে শান্তি ফিরে আসার আনন্দে দুধ দিয়ে গোসল করেছি আমি। সেই সঙ্গে গ্রামের দুই শতাধিক মানুষকে আমাদের বাড়িতে ভুরিভোজ করানো হয়েছে।

তবে রিনার দাদা মুক্তার হোসেন বলেন, আলম একজন মাদকাসক্ত যুবক। প্রায়ই রিনাকে নির্যাতন করতো। এজন্য বৈধ নিয়মে আলমকে তালাক দিয়েছে রিনা।

রিনার বাবা আনোয়ার হোসেন বলেন, আলম কামাই-রোজগার করে না। উল্টো নেশা করে মাতলামি করে। মেয়ে তার সংসার করবে না বলে তালাক দিয়েছে। এতে আমরা খুশি।