Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

কালবৈশাখী ঝড়ে রাজধানীসহ সারাদেশে নিহত ১৪

jhorরাজধানীসহ দেশের পাঁচ জেলায় শনিবার সন্ধ্যায় কালবৈশাখী ঝড়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে রাজধানীতেই মারা গেছেন চারজন। তাদের সকলকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়েছে।

ঢাকা : রাজধানীর সদরঘাটে বৃষ্টির সময় লঞ্চের সঙ্গে এক নৌকার ধাক্কা লাগলে হানিফ শেখ (৫০) নামের এক মাঝির মৃত্যু হয়। মৎস্য ভবন এলাকায় ঝড়ে বিলবোর্ড পড়ে বায়েজিদ আলম (৫০) ও তারা মিয়া (৪৫) নামের দুই রিকশা চালক মারা যান। এছাড়া গুলিস্তানে ঝড়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আহাদ পুলিশ বক্সের সামনে বাস চাপায় জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) নামের এক ব্যক্তি মারা যান।

রাজশাহী : বাঘা উপজেলার পাকুড়িয়া গ্রামে ঝড়ে বাড়ির দেয়াল ধসে জাহানারা বেগম নামে এক বৃদ্ধা, পদ্মা নদীতে মাছ ধরে ফেরার পথে মাটিচাপা পড়ে ইমাজ উদ্দিন নামে এক জেলে, গোদাগাড়ী উপজেলার চর আশারিয়া গ্রামের মৃত খালেক ঘোষের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও পবা উপজেলায় বড়গাছিতে আবুল হোসেন নামে এক ব্যক্তি বজ্রপাতে মারা গেছেন।

নওগাঁ : মান্দায় শাহানা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূ দেয়ালচাপায় নিহত হয়েছেন। মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পাবনা : জেলা শহরের চাঁদমারীতে এক চা বিক্রেতার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া ঝড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

chardike-ad

নাটোর : গুরুদাসপুরে কালবৈশাখীর সময় বজ্রপাতে খোকন হোসেন (২৮) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

বগুড়া : কালবৈশাখির কবলে পড়ে শাজাহানপুর উপজেলার রাধানগর গ্রামের সান্না মিয়া (৩২), জেলা শহরের বউবাজার এলাকার হাছিরন (৩৫) ও একই এলাকার এক শিশু (৮) মারা গেছেন।