sentbe-top

অপপ্রচারের লাউড স্পিকার বন্ধের ঘোষণা সাউথ কোরিয়ার

নর্থ কোরিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লাউড স্পিকার বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সাউথ কোরিয়া। এ সপ্তাহে উচ্চ পর্যায়ের এক আলোচনায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

দুই দেশের সীমান্ত এলাকাগুলোতে উচ্চ স্বরে পপ সংগীত ও সংবাদের মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে আসছিল সাউথ কোরিয়া। বিবিসি জানিয়েছে, নর্থ কোরিয়ার ধারণা সাধারণ নাগরিক ও সৈন্যবাহিনীকে উদ্দেশ্য করে সীমান্ত এলাকাগুলোতে এই প্রচারণা চলতো।

korea speakerএদিকে সাউথ কোরিয়ার রাজধানী সিউল থেকে বলা হচ্ছে, লাউড স্পিকার বন্ধ করে দেয়ার ফলে শুক্রবারের আলোচনায় স্থির অবস্থা আসবে। অন্যদিকে নর্থ কোরিয়ার সীমান্তে তাদের নিজেস্ব স্পিকারের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে সাউথ কোরিয়ার মতোই তারা লাউড স্পিকার বন্ধের কোন সিদ্ধান্ত নিবে কিনা অথবা নিরবতা অনুসরণ করবে তা এখনও জানা যায়নি।

সাউথ কোরিয়া বলছে, সোমবার সকাল থেকেই সীমান্তে স্পিকারে অপপ্রচার চালানো বন্ধ করে দেয়া হয়।

মুখপাত্র চোই হই হিউন সাংবাদিকদের বলেন,এই পদক্ষেপটি দুই কোরিয়ার মধ্যে সামরিক উত্তেজনা কমিয়ে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিকাশে সাহায্য করবে। আমরা আশা করি এই সিদ্ধান্ত উভয়ই কোরিয়ানদের একে অপরের বিরুদ্ধে পারস্পরিক সমালোচনা ও অপপ্রচার বন্ধ করতে সহায়তা করবে। এবং দুই দেশের মধ্যে শান্তি তৈরিতে অবদান রাখবে।

২৭ এপ্রিল সাউথ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায় ইনের সঙ্গে এক দশকেরও বেশি সময় পর আন্তঃকোরীয় বৈঠকে বসার কথা রয়েছে কিম জং উনের। এরপর জুনে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন তিনি। সাউথ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র – দু’দেশই নর্থকে পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা বন্ধ করার জন্য দীর্ঘ সময় ধরে চাপ দিয়ে আসছিল। তাই পিয়ংইয়াংয়ের এই সিদ্ধান্তে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে তারা।

এ ঘোষণার পর ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটবার্তায় বলেন, ‘নর্থ কোরিয়া এবং পুরো বিশ্বের জন্যই এটি খুব ভালো একটি খবর – অনেক বড় অগ্রগতি এটা।’

sentbe-top