cosmetics-ad

এবার পাকিস্তানের চায়ের বিজ্ঞাপনে পাইলট অভিনন্দন!

tea-adপাকিস্তানে চায়ের একটি ব্রান্ডের বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনে ভারতীয় বিমানবাহিনীর উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের উপস্থিতি ঘিরে বিতর্ক শুরু হয়েছে। পাক ওই চায়ের বিজ্ঞাপনের একটি অংশে চায়ের কাপ হাতে অভিনন্দনকে দেখা যায়। তিনি চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে বলছেন, চমৎকার চা। আপনাকে ধন্যবাদ। তাপল চা ব্রান্ডের এই বিজ্ঞাপনের ভিডিও সামাজিকে যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের আকাশসীমায় ঢুকে পড়া পাকিস্তানি এফ-১৬ যুদ্ধবিমানকে ধাওয়া করেছিলেন উইং কমান্ডার অভিনন্দন। পাকিস্তানি বিমানের সঙ্গে আকাশে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে তিনি ঢুকে পড়েছিলেন পাকিস্তানের আকাশসীমায়।

পাকিস্তান সেনাবাহিনী গুলি চালিয়ে অভিনন্দনের মিগ-২১ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করে। পরে প্যারাসুট ব্যবহার করে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে নামেন তিনি। পাকিস্তান সেনাবাহিনী তাকে আটক করে। প্রতিবেশি ভারতের সঙ্গে উত্তেজনা প্রশমনের অংশ হিসেবে আটক পাইলট অভিনন্দনকে ১ মার্চ ফেরত দেয় পাকিস্তান।

পরে পাকিস্তান সেনাবাহিনী একটি ভিডিও প্রকাশ করে। এতে দেখা যায়, হাতে চায়ের কাপ নিয়ে অভিনন্দন বলছেন, তিনি ভালো আছেন। পাক সেনাবাহিনী তার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেছে। এ সময় চায়ের কাপ হাতে অভিনন্দনকে বলতে দেখা যায়, ‘চমৎকার চা।’

ভিডিওর এই ‘চমৎকার চা’ ব্যবহার করেই তাপল চায়ের নতুন বিজ্ঞাপন ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে ভারতীয় উইং কমান্ডারের অভিনন্দনের মুখ ব্যবহার করা হয়েছে। যেখানে পাক হেফাজতে থাকা অভিনন্দন বলছেন, ‘এই চা চমৎকার। ধন্যবাদ।’

ভিডিওটি ট্যুইটারেও ভাইরাল হয়েছে। অনেক টুইট ব্যবহারকারী ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। কিন্তু ভিডিওটি কী সত্য?:

পাকিস্তানি ব্র্যান্ডের তাপল চা এই ভিডিও প্রকাশ করেনি। এমনকি তাদের কোনো বিজ্ঞাপনেও ভারতীয় উইং কমান্ডার অভিনন্দনের ছবি কিংবা ভিডিও ব্যবহৃত হয়নি।

তাপল চায়ের বিজ্ঞাপন কিওয়ার্ড ব্যবহার করে গুগলে সার্চ করলে, আসল ভিডিও সন্ধান মিলে প্রথম পেইজে। আসল ভিডিও দেখলেই বোঝা যায়, তাতে অভিনন্দনের উপস্থিতি নেই।

কিন্তু, ওই ভিডিওর কিছু অংশ এডিট করে তাতে অভিনন্দনের চায়ের কাপ হাতে বক্তব্য জুড়ে দেয়া হয়েছে। চায়ের কাপ হাতে অভিনন্দনের ভিডিওটি ২৭ ফেব্রুয়ারি শেয়ার করেছিল পাক সেনাবাহিনী।

পাকিস্তানি সাংবাদিক মুনীব ফারুখ ট্যুইট করেছিলেন সেই ভিডিও। তাপল চায়ের বিজ্ঞাপনে অভিনন্দনের মুখ ব্যবহৃত ভিডিওটিতে খেয়াল করলে দেখা যায়, এতে ‘@iedit_whatuwant’ ওয়াটারমার্ক রয়েছে। ভিডিওটির শেষেও একই অ্যাকাউন্টের উল্লেখ রয়েছে।

সম্ভবত ওই অ্যাকাউন্ট থেকে ভিডিওটি এডিটের পর শেয়ার করা হয়েছে। টুইটারে এই নামে কোনো অ্যাকাউন্ট পাওয়া যায়নি। ‘ফান ফাস্ট এডিটস – fun fast edits’ নামে একটি ফেসবুক পেইজে এই ইউজার নাম ব্যবহার করা হয়েছে। তবে ওই পেইজে এমন বিজ্ঞাপনের ভিডিও পাওয়া যায়নি। তাপল চায়ের ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেইজেও অভিনন্দন বা তাকে উল্লেখ করে কোনো ভিডিও পোস্ট করা হয়নি।