sentbe-top

চলমান সংকট নিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন

বাংলাদেশে টানা অবরোধ, হরতাল ও সহিংসতা এর প্রভাব শিল্প-সংস্কৃতির জগতে কতোটা পড়েছে? বাংলাদেশের গণতন্ত্র নিয়ে কি ভাবছে শিল্পী-সমাজ? এসব নিয়ে কথা বলতেই বিবিসি বাংলার স্টুডিওতে এসেছিলেন চলচ্চিত্র অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, এধরনের পরিস্থিতি কারও কাম্য নয়। রাজনীতিবিদেরা এধরনের অবস্থা চাইলেও সাধারণ মানুষ এতে কষ্ট পাচ্ছে, যা একজন শিল্পীর কাছে অনেক বেশি স্পর্শকাতর একটি ব্যাপার। অবরোধ, হরতালের প্রভাব শিল্পীদের কাজের উপরও পড়ছে।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, শিল্পীদের বরাবরই বিবদমান দু’পক্ষ থেকেই চাপের মুখে থাকতে হয়। ন্যায় কথা বলার এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা এদেশে নেই বলে উল্লেখ করেন তিনি।

গণতন্ত্র বলতে যেটাকে বোঝায় সেটি বাংলাদেশে নেই বলেই মনে করেন এই অভিনেতা। তার ভাষায় সরকার ও বিরোধীদের মধ্যে এখন একটি যুদ্ধ চলছে। একদল বলছে গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করার জন্য কাজ করছে, আরেক দল বলছে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনার জন্য তারা কাজ করছে।

কিন্তু ইলিয়াস কাঞ্চনের মতে, এটি গণতন্ত্র নয়। তিনি বলেন, গণতন্ত্রের ধাপগুলো প্রতিষ্ঠিত করা দরকার। এদেশে জনগণের ক্ষমতায়ন নেই।

রাজনীতির এই পরিস্থিতির জন্য দলগুলোর ক্ষমতার লোভটিই এখানে মুখ্য হয়ে উঠেছে বলে মনে করেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

sentbe-top