sentbe-top

উত্তর কোরিয়া: ইন্টারনেট যেখানে রূপকথার গল্প

internet-north-koreaসমাজতান্ত্রিক দেশ উত্তর কোরিয়ায় সবকিছুই চলে কঠোর বিধি নিষেধের মধ্য দিয়ে। বিশ্ব দিন দিনই উন্নত প্রযুক্তি সাথে তাল মিলিয়ে সামনে এগিয়ে গেলেও কঠোর বিধি নিষেধের মধ্যে পড়ে ইন্টারনেট তথা প্রযুক্তি জগত থেকে অনেকটাই বিচ্ছিন্ন দেশটির অধিবাসীরা।

ইন্টারনেট এবং প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহার নিয়ে দেশটিতে রয়েছে বেশ কিছু কঠোর আইন। এমনই কিছু আজব বিষয় জেনে নেওয়া যাক-

উত্তর কোরিয়ার ভাষায় ইন্টারনেটকে বলা হয় ‘উজ্জ্বল তারকা’। দেশটিতে সরকারীভাবে ইন্টারনেট ব্যবহারের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে ইন্টারনেট ব্যবহার করে এমন মানুষের সংখ্যা কয়েক হাজারের মধ্যে সীমাবদ্ধ। ‘স্টার জয়েন্ট ভেঞ্চার কোম্পানি’ নামের একটি মাত্র ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার রয়েছে পুরো উত্তর কোরিয়ায়।

তবে মজার ব্যাপার হলো, দেশটির অধিবাসীদের ইন্টারনেটের নামে ব্যবহার করতে দেওয়া হয় ইন্ট্রানেট যেখানে যুক্ত আছে প্রায় সাড়ে ৫ হাজার ওয়েবসাইট। এর মধ্যে আছে সরকারি সংবাদ সংস্থার ওয়েবসাইট, একটি সম্প্রচার কেন্দ্র, দেশটির বিমান সংস্থার ওয়েবসাইট এবং সরকারি ইনস্যুরেন্স কোম্পানির ওয়েবসাইট।

আর ‘আসল ইন্টারনেট’ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে কেবলমাত্র সরকারি কর্মকর্তা এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের। দেশটির পুরো ইন্টারনেট ব্যবস্থা চীনের উপর নির্ভরশীল।

অবাক করার মতো একটি ব্যাপার হলো, দেশটির অনেক নাগরিকই জানে না ইন্টারনেট বলে কিছু একটা আছে। অবশ্য যে দেশে ব্যক্তিগত কম্পিউটারের জন্য সরকারের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হয় এবং পুলিশের খাতায় নিবন্ধন করা থাকে সকল কম্পিউটার, সে দেশের ক্ষেত্রে এ আর এমন কী।

দেশটিতে ইমেইল আদান প্রদানের জন্য আছে দুটি সংস্থা। দেশটিতে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিকরা চাইলে সরকারি মোবাইল অপারেটরের থ্রিজি ইন্টারনেট সেবা ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারে।

sentbe-top