cosmetics-ad

এবার গুগল-টুইটার থেকে ডাক পাচ্ছে আহমেদ

ahmed

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে বোমা বানানোর অভিযোগে পুলিশের হাতে আটক হয়েছিল ১৪ বছর বয়সী প্রকৌশল কৌতূহলী আহমেদ মোহামেদ। পুলিশ জানিয়েছিল তার বিরুদ্ধে চার্জও গঠন করা হবে। কিন্তু না, টেক্সাসের আরভিন শহরের পুলিশ প্রধান ল্যারি বয়ড ঘোষণা দেন আটক ওই কিশোরের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা। তিনি বলেন, ওই কিশোর কোনো বোমা তৈরি করেনি। এটি নিছক একটি হাতঘরি।

পরে তাকে মুক্ত করে দেয়া হয়। আহমেদ মোহামেদ মুসলিম বলে এ ঘটনায় পুরো বিশ্বে আলোচনার ঝড় বয়ে যায়। খবর চলে যায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে। তিনি ওই কিশোরকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ জানিছিলেন। ওবামা টুইটারে আহমেদকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ জানিয়ে বলেন `Cool clock, Ahmed. Want to bring it to White House? We should inspire more kids like you to like science. It`s what makes America great.`

তবে এই কৌতূহলী কিশোরকে এবার টুইটার থেকে কাজের অফার দেয়া হয়েছে। টুইটার কর্তৃপক্ষ এক টুইটবার্তায় ওই কিশোরকে টুইটারে ইন্টার্নশিপ করার কথা জানিয়েছে। এছাড়া ফেসবুক, নাসা ও গুগল পরিদর্শনেরও অফার এসেছে ওই কিশোরের কাছে। এক বার্তায় ফেসবুক সিইও মার্ক জুকারবার্গ বলেছেন, আহমেদ, তুমি যদি কখনো ফেসবুক কার্যালয় পরিদর্শনে আসো, আমি তোমার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবো।

উল্লেখ্য, গত সোমবার টেক্সাসের স্থানীয় সময় সকালে নিজের বানানো একটি ডিজিটাল ঘড়ি নিয়ে স্কুলে যায় আহমেদ মোহামেদ। তবে তার শিক্ষকরা ওই যন্ত্রটি দেখার পর উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে এবং সেটিকে একটি বোমা মনে করে পুলিশে খবর দেয়। এর কিছুক্ষণ পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাতে