sentbe-top

ভিসা সমস্যায় আমিরাতে ব্যবসা চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা

hotel-emirateসংযুক্ত আরব আমিরাতে ভিসা সমস্যার কারণে ব্যবসা পরিচালনা করতে ব্যাপক সমস্যার মধ্যে পড়ছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা। এর মধ্যে রয়েছে খাবারের হোটেলও।

আরব আমিরাতের দেশীয় খাবারের একটি হোটেল ও রেস্টুরেন্ট হলো আবুধাবীর শিল্পনগরী মোচ্চাফ্ফার ৩৯নং সানাইয়ার্ এশিয়ান গেস্ট রেস্টুরেন্ট অ্যান্ড গ্রিল হোটেল। এতে দেশীয় প্রবাসীরা যেমন খেতে আসেন তেমনি আসেন বিদেশিরাও। তবে দীর্ঘদিন ভিসা বন্ধ থাকাতে প্রতিষ্ঠানটি লাভজনক হিসেবে চালিয়ে নিতে হিমশিম খাচ্ছেন প্রবাসী ব্যবসায়ীরা। তাদের দাবি, সরকার দ্বিপাক্ষিক আলোচনার ভিত্তিতে ভিসা চালুর ব্যবস্থা করে লোকসানের হাত থেকে বাচানোর। এতে দেশে রেমিটেন্স প্রবাহও বৃদ্ধি পাবে।

প্রায় দুই বছর আগে এ প্রতিষ্ঠানটি আমিরাতের বিভিন্ন অঞ্চলের প্রবাসীদের খাবারের চাহিদা পূরণ করার নিমিত্তে চালু করা হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটি চালু করার সময় এর মালিকের আশা ছিল- আমিরাতে শীঘ্রই দেশীয় বন্ধ ভিসা চালু হবে। ফলে তিনি তার কনস্ট্রাকসান ব্যবসার পাশাপাশি এ প্রতিষ্ঠানটি চালু করেন।

প্রতিষ্ঠানটির মালিক তরুণ ব্যবসায়ী আবদুল আলিম সাইফুল কালের কন্ঠকে জানান,দেশীয় প্রবাসীদের সাথে সাথে ভিন্ন দেশী প্রবাসীদেরও আকৃষ্ট করেছে আমার এ প্রতিষ্ঠানটি। দেশীয় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে খানা সাপ্লাই করার অর্ডারও প্রচুর মিলছে। উপরন্তু আমিরাতে দেশীয় খাবারের রেষ্টেুরেন্ট ও হোটেল ব্যবসার প্রচুর চাহিদা সত্বেও প্রতিষ্ঠানটি সম্প্রসারনসহ আরও শাখা খোলার পরিকল্পনা ছিল। কিন্ত দেশীয় শ্রমিকদের ভিসা বন্ধ থাকার কারণে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটির সম্প্রসারণ বা অন্য কোনো শাখা খোলা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, বিদেশি স্টাফ দিয়ে ব্যবসা চালিয়ে নেয়াটা ব্যয়বহুল। তাই তিনি সরকারের কাছে ভিসা চালু করার জোর দাবী করেন। যতদিন বাংলাদেশীদের ভিসা চালু না হবে ততদিন অন্য দেশী শ্রমিক আনতেও নারাজ তিনি। তাই তার দাবী, দুদেশের মধ্যে কুটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করে পাচ বছর ধরে বন্ধ থাকা দেশীয় ভিসা অচিরে চালু করার।

সুত্রঃ কালের কণ্ঠ

sentbe-top