ছাত্রলীগের ৭ নেতাসহ ১২ শিক্ষার্থী বহিষ্কার : ঢা‌বি সি‌ন্ডি‌কে‌টের সিদ্ধান্ত

duঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সলিমুল্লাহ মুসলিম (এসএম) হলের ছাত্র এহসান রফিককের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় হল শাখা ছাত্রলীগের সাত নেতাকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অপর একটি ঘটনায় পালি অ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগের পাঁচ শিক্ষার্থীকে দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সভায় এ ১২ জনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে সাত ছাত্রলীগ নেতার একজনকে আজীবন ও ছয়জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়।

পাঁচ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তারা সহপাঠীর বিরুদ্ধে অশ্লীল মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়েছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক মো: আখতারুজ্জামান বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, শৃঙ্খলা কমিটির সুপারিশগুলো আমরা গ্রহণ করেছি। এর একটি শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনা এবং অন্যটি সহপাঠীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অশ্লীল মন্তব্য করা। তিনি বলেন, সামা‌জিক মাধ্য‌মে এ ধরনের কর্মকাণ্ডের জন্য সাজা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবারই প্রথম। এর ফ‌লে শিক্ষার্থীরা আরো সতর্ক হবে বলে মনে করি।

এ‌দি‌কে, এহসান রফিককে মারধরের ঘটনার মূল হোতা শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক ওমর ফারুককে (মার্কেটিং বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ) স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। এ ছাড়া দুই বছরের জন্য বহিষ্কার হয়েছেন শাখা ছাত্রলীগের সদস্য সামিউল ইসলাম সামি (সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ) ও সদস্য আহসান উল্লাহ (দর্শন বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ), সহসম্পাদক রুহুল আমিন বেপারি (গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ), উপ-সম্পাদক মেহেদী হাসান হিমেল (উর্দু বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ) এবং সহসম্পাদক ফারদিন আহমেদ মুগ্ধ (লোকপ্রশাসন বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ)। ঘটনায় প্ররোচনার দায়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি আরিফুল ইসলামকে (শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট, চতুর্থ বর্ষ) এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

এর আগে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা কমিটি ছাত্রলীগের এই সাত নেতাকে বহিষ্কারের সুপারিশ করে। অন্য‌দি‌কে সহপাঠীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করার দায়ে দুই বছরের জন্য বহিষ্কৃতরা হলেন- আশিকুর রহমান, হযরত আলী, মোস্তাক আল মামুন পিয়াল, মো: জহুরুল ইসলাম এবং রাশেদ আহমেদ। এরা সবাই দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।