আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিচার চায় জাতিসংঘ

মিয়ানমারের রাখাইনে মুসলিম রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালিয়ে দেশটি যে মানবতাবিরোধী অপরাধ করেছে তার বিচার আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) হওয়া উচিত বলে মনে করে জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক কমিশন। এ বিষয়ে আইসিসির কাছে সুপারিশ করতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি। জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক কমিশনের প্রধান জেইদ রাদ আল হুসেইন শুক্রবার এ আহ্বান জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে রাদ বলেন, ‘ওই এলাকায় যে গণহত্যার ঘটনা ঘটেছে সে ব্যাপারে আমাদের ঘোরতর সন্দেহ রয়েছে। কিন্তু একমাত্র আদালতই এটি নিশ্চিত করতে পারে।’

গত বছরের ২৫ আগস্ট নিরাপত্তা বাহিনীর চেকপোস্টে হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে। এতে কয়েক হাজার রোহিঙ্গা মুসলমান নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত ও বিকলাঙ্গ হয়েছে আরো কয়েক হাজার। আর জীবন বাঁচাতে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছে।

মিয়ানমারের ওই অভিযানকে জাতিগত নিধন বলে অভিহিত করেছে জাতিসংঘ। এছাড়া আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো এবং যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইইউনিয়নসহ বিশ্বনেতারা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও সংশ্লিষ্টদের বিচার দাবি করেছেন।