sentbe-top

শীতলক্ষ্যায় চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার

nowka-dubiনারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় নৌকা ডুবে নিখোঁজদের মধ্যে চারজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে উপজেলার রূপসী সিটি অয়েল মিলের পাস থেকে তিনটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে শনিবার রাতে তারাব বাজার এলাকার সুলতানা কামাল সেতু এলাকা থেকে একটি মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় এখনও একজনের খোঁজ পাওয়া যায়নি।

চারটি মরদেহ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাইদুজ্জামান।

উদ্ধারকৃতরা হলেন, রাজধানীর কদমতলী থানার দক্ষিণ দনিয়ার আজিজুল মিয়ার ছেলে কারখানা শ্রমিক মাসুদুর রহমান লতিফ (১৮), একই এলাকার নাসির উদ্দিনের ছেলে জুতা ব্যবসায়ী তুষার (২৬), জয়নাল মিয়ার ছেলে ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম রিপন ওরফে বাবু (২০) ও রূপগঞ্জের তারাব পৌরসভার বরপা এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে জাসিম মোহাম্মদ রাজু (২৮)। নিখোঁজ রয়েছেন, পূর্ব ধোলাইরপার এলাকার রবিউল মিয়ার ছেলে টেইলার্স শ্রমিক শরীফ (২৮)।

এসআই সাইদুজ্জামান জানান, রাত পৌনে ১২টার দিকে তারাব বাজার এলাকার সুলতানা কামাল সেতু এলাকার শীতলক্ষ্যা নদীতে একটি মরদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ সেখান থেকে ওই মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।এছাড়া রোববার সকাল ৭টার দিকে রূপসী সিটি অয়েল মিলের পাশের শীতলক্ষ্যা নদীতে আরও তিন মরদেহ ভেসে ওঠে। পরে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হলে স্বজনরা শনাক্ত করেন।

জানা যায়, রাজধানীর ডেমরা থেকে ১৪ জনের একদল যুবক একটি নৌকা ভাড়া নিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীতে ঘুরতে আসেন। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রূপসী কাজীপাড়া এলাকার শীতলক্ষ্যা নদীর মাঝপথে গেলে একটি বালুবাহী বাল্কহেড পেছন থেকে ধাক্কা দিলে নৌকাটি ডুবে যায়। এ সময় নৌকাতে থাকা মাঝিসহ ১৫ জনের মধ্যে ১০ জন সাঁতার কেটে তীরে আসতে পারলেও অপর পাঁচ জন নিখোঁজ ছিলেন।

sentbe-top