sentbe-top

উত্তর কোরিয়ায় ক্ষুধার অাধিক্য নেই

জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিবিষয়ক সংস্থার (ডব্লিউএফপি) প্রধান ডেভিড বেসলি দুই দিনের সফরে উত্তর কোরিয়া গিয়েছিলেন। তিনি দেশটির অভ্যন্তরে বেশ কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন দেখেছেন। শুধু তাই নয়, উত্তর কোরিয়া তাদের দীর্ঘদিনের বন্ধ দরোজা খুলে দিয়েছে এ কর্মকর্তার সফরের মধ্য দিয়ে সেটাও প্রতীয়মান হয়। ডেভিড বেসলি গত ৮ থেকে ১১ মে উত্তর কোরিয়ায় অবস্থান করছিলেন।

সেখান থেকে ফিরে গতকাল বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, দেশটি (উত্তর কোরিয়া) আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপনে ধারাবাহিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়া সেখানকার ‘ক্ষুধার’ দৃশ্যটিও ১৯৯০ দশকের মতো অত তীব্র নয়। উত্তর কোরিয়া তাদের ইতিহাসের নতুন অধ্যায় শুরু করতে যাচ্ছে। দেশটির অভ্যন্তরে অবকাঠোমোও বেশ উন্নত হয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত বছর আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালেও এ বছরের শুরুতে তাদের মধ্যে নাটকীয় পরিবর্তন আসে। শুরুতেই তারা দুই কোরিয়ার মধ্যে শান্তির কথা বলেছেন। গত ২৭ এপ্রিল তার ঐতিহাসিক দৃশ্যপট তৈরি হয়। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১২ জুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে বসবেন।

sentbe-top