cosmetics-ad

লিবিয়া উপকূলে দুই অভিবাসীর মৃত্যু, বাংলাদেশিসহ উদ্ধার ৫০০

libiya

ভূ-মধ্যসাগর লিবিয়া উপকূলে ভাসমান একটি নৌকা থেকে দুই অভিবাসীর মরদেহ উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড। উদ্ধার অভিযানে গত তিনদিনে বাংলাদেশিসহ পাঁচশ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।

লিবিয়া উপকূলে কোস্টগার্ডের মুখপাত্র সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানান, এই অভিবাসনপ্রত্যাশীদের মধ্যে ৪৭৩ জন আফ্রিকা, সিরিয়া ও বাংলাদেশের নাগরিক। চারটি ভিন্ন অভিযানে তাদের উদ্ধার করা হয়। রোববার দু’জনের মরদেহ পাওয়া যায় ভাসমান একটি নৌকায়। এরপর অভিযান চালিয়ে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় ১৪০ জনকে উদ্ধার করা হয়।

লিবিয়ার নৌবাহিনীর অনুরোধে দুটি মার্চেন্ট জাহাজ এই উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়। প্রথম দফায় উদ্ধার হওয়া ১৪০ জনের মধ্যে ২৫ জন নারী এবং দু’জন শিশু। ইতালি সরকার জানিয়েছে, তারা লিবীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে, যাতে উদ্ধার অভিযানে কোনো সহায়তা লাগলে তারা সাহায্য করতে পারে।

রোমে মন্ত্রীদের কাউন্সিলর বিবৃতিতে জানিয়েছে, সমুদ্র কিছুদিন অশান্ত থাকার পর গত তিন-চারদিন বেশ শান্ত ছিল। আর সেই সুযোগটি নিয়েছে এই অভিবাসন প্রত্যাশীরা। জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, সম্প্রতি পানিতে ডুবে অন্তত ১৭০ জন অভিবাসীর মৃত্যু হয়েছে ভূমধ্যসাগরে।

বেশিরভাগ অভিবাসনপ্রত্যাশীর লক্ষ্য থাকে লিবীয় উপকূল থেকে ৩০০ কিলোমিটার দূরের দেশ ইতালিতে পৌঁছানো। প্রতি বছর লাখো অভিবাসনপ্রত্যাশী এই পথেই ইতালিতে প্রবেশ করছে। এ সময় সমুদ্র পাড়ি দিতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে বহু মানুষ।

সৌজন্যে- ডয়েচে ভেলে