cosmetics-ad

যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি অবস্থা জারি করলেন ট্রাম্প

trump
ফাইল ছবি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের প্রকল্পের অর্থ নিয়ে বিরোধের জেরে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। টিভিতে সরাসরি দেওয়া এক বক্তব্যে জরুরি অবস্থার কথা ঘোষণা করেন ট্রাম্প।

শুক্রবার হোয়াইট হাউজের রোজ গার্ডেন থেকে দেওয়া বক্তব্যে ট্রাম্প ঘোষণা দেন, মেক্সিকো থেকে দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলের সীমান্ত দিয়ে মাদক, অপরাধী এবং অবৈধ অভিবাসীর ঢল ঠেকিয়ে দেশকে সুরক্ষিত রাখতেই তিনি জরুরি অবস্থার আদেশে সই করছেন।

জরুরি অবস্থা জারির ফলে ট্রাম্প সামরিক কিংবা দুর্যোগ খাতের মতো বিভিন্ন খাত থেকে অর্থ দেয়াল নির্মাণের জন্য বরাদ্দ দিতে পারবেন।

অবৈধ অভিবাসন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য অন্যতম হুমকি বলে তুলে ধরেন ট্রাম্প। এ কারণে তিনি দেয়াল নির্মাণে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন বলে জানিয়েছেন।

মোক্সিকো সীমান্তে স্থায়ী দেয়াল নির্মাণ ছিল ট্রাম্পের অন্যতম নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। নির্মাণ কাজ শুরু করতে চলতি বছর কংগ্রেসের কাছে ৫৭০ কোটি ডলারও চেয়েছিলেন তিনি। তবে সে টাকা না পেয়ে টানা ৩৫ দিন কেন্দ্রীয় সরকারকে কার্যত অচল করে রাখেন ট্রাম্প। তবে তার পরেও অর্থ সংস্থান না হওয়ায় তিনি জরুর অবস্থা ঘোষণা করলেন।

এ ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে ট্রাম্প সামরিক খাতের নির্মাণ প্রকল্পের ৩৬০ কোটি ডলার, মাদকবিরোধী প্রকল্পের ২৫০ কোটি ডলার, এবং ট্রেজারি বিভাগের ৬০ কোটি ডলার দেয়াল নির্মাণে বরাদ্দ দিতে পারবেন। সব মিলে দেয়াল নির্মাণের জন্য ট্রাম্পের হাতে চলে আসবে প্রায় ৮শ’ কোটি ডলার। তবে এ প্রক্রিয়াতেও জটিলতা রয়েছে। ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্ত আদালতে চ্যালেঞ্জ করলে তা আটকে যেতে পারে। পরে তাতে দীর্ঘ আইনি জটিলতার আশঙ্কাও রয়েছে।

সৌজন্যে- কালের কণ্ঠ