cosmetics-ad

করোনায় অসহায়দের পাশে বিশ্বকাপজয়ী যুবারা

u-19-team

করোনাভাইরাসের কারণে অসহায় হয়ে পড়েছে দেশের নিম্নআয়ের খেটে-খাওয়া মানুষ। তাদের রোজগারের পথ বন্ধ। একদিন আয় না হলে খাবার জোটে না। এমন অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশের সরকার, বিত্তবানরা। ক্রিকেটাররাও যে যার মত করে অসহায়দের পাশে দাঁড়াচ্ছেন।

এবার দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো অনুর্ধ্ব-৯ বিশ্বকাপজয়ী যুব ক্রিকেটাররা। যে সব ক্রিকেটারের বয়স ১৯ বছরেরও কম, যাদের এখনও পরিবারের ওপর নির্ভর করতে হয়, সেসব তরুণ বয়সের ক্রিকেটাররাও এগিয়ে এলো মানুষের সাহায্যে।

ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) আজ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ‘করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য অনুর্ধ্ব-১৯ দলে ক্রিকেটাররা কোয়াবের তহবিলে আড়াই লাখ টাকা প্রদান করেছেন।’

কোয়াবের পক্ষ থেকে দেয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আমরা সকলেই অবগত যে, দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত অসহায় মানুষের সহায়তায় ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) বর্তমান ও সাবেক সকল ক্রিকেটার, সংগঠক ও শুভানুধ্যায়ীদের নিয়ে আর্থিক তহবিল গঠনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সেই প্রেক্ষাপটে দেশের চুক্তিবদ্ধ প্রথম শ্রেণীর সকল ক্রিকেটারদের পর বিশ্বকাপজয়ী বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের সকল খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাবৃন্দ ও সম্মিলিতভাবে আড়াই লক্ষ টাকা কোয়াবের সহায়তা তহবিলে প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।’

অনুর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটারদের এই উদ্যোগের প্রশংসা করে কোয়াব লিখেছে, ‘দেশের এই দুঃসময়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটাররা যে দায়িত্ববোধের পরিচয় দিয়েছেন তা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। ক্রিকেটারদের সংগঠন হিসেবে এই সিদ্ধান্তের প্রতি আমরা অত্যন্ত সম্মান জানাচ্ছি। ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (কোয়াব) মনে করে, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই দুর্যোগ মোকাবেলা সম্ভব।’