sentbe-top

দক্ষিণ কোরিয়ার কারখানায় উত্পাদন কমেছে

সিউল, ৩১ মে ২০১৪:

কারখানা ও মেশিনারিজে বিনিয়োগ অব্যাহত থাকলেও চলতি বছরের এপ্রিলে দক্ষিণ কোরিয়ায় কারখানা উৎপাদনে প্রবৃদ্ধি প্রত্যাশার চেয়ে কম হয়েছে।

f04da2db11221419d5f407গতকাল শুক্রবার প্রকাশিত উপাত্তে দেশটির পরিসংখ্যান বিভাগ জানায়, মৌসুমভিত্তিক ইস্যু সমন্বয়ের পর মার্চের তুলনায় এপ্রিলে দেশটির শিল্প উৎপাদন সূচক বেড়েছে মাত্র দশমিক ১ শতাংশ। যদিও এ সময়ে সূচক দশমিক ৬ শতাংশের ঘরে থাকবে বলে জানিয়েছিল রয়টার্স। আর মার্চে উৎপাদন  বৃদ্ধির হার ছিল দশমিক ৯ শতাংশ।

বিশ্লেষকরা এর জন্য সাম্প্রতিক ফেরি দুর্ঘটনাকে দায়ী করেছেন। এর কারণে অভ্যন্তরীণ পর্যটন ও খুচরা বিক্রি কমে গেছে। কারখানা উৎপাদনে ধীরগতি আসার পাশাপাশি রফতানি নিয়েও দক্ষিণ কোরিয়া তেমন সুবিধাজনক অবস্থানে নেই। বিশ্লেষকদের পূর্বাভাস অনুসারে, মে মাসে দেশটির রফতানি খাতের প্রসার হবে ১ দশমিক ২ শতাংশ, যা এপ্রিলে ছিল ৯ শতাংশ।

এদিকে রয়টার্স এক পূর্বাভাসে জানায়, কার্যদিবসের হিসেবে মে মাসে রফতানি বাড়বে। এ মাসে প্রতি কার্যদিবসে দক্ষিণ কোরিয়া রফতানি করেছে ২২৭ কোটি ডলারের পণ্য, যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৮ শতাংশ বেশি। গত বছরের সে মাসে তাদের প্রতি কার্যদিবসে দৈনিক রফতানি ছিল ২১০ কোটি ডলার। তবে সামগ্রিকভাবে এ সময় দেশটির রফতানি কমেছে। আর এর পেছনে আগের বছরের তুলনায় কম কার্যদিবস থাকাকে দায়ী করেছেন অনেক অর্থনীতিবিদ।

এদিকে দেশটির অভ্যন্তরীণ ভোগ খাতটি এখনো দুর্বল অবস্থায় রয়েছে। আর তাই প্রবৃদ্ধিকে সহায়তা দিতে রফতানির দিকেই দক্ষিণ কোরিয়াকে মনোযোগ বাড়ানোর পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের। সুত্রঃ বণিকবার্তা

sentbe-top