sentbe-top

সিউলকে উত্তর কোরিয়ার হুঁশিয়ারি

korean-flagউত্তর কোরিয়া বুধবার অভিযোগ করেছে, দক্ষিণ কোরিয়া সীমান্ত উত্তেজনা প্রশমনে করা চুক্তিকে জটিল করে তুলছে। সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় পিয়ংইয়ংকে ক্ষমা চাইতে বলায় কষ্টার্জিত এ চুক্তি গুরুত্বহীন হয়ে পড়ছে বলেও দেশটি সতর্ক করে দিয়েছে।

গত মাসে ওই মাইন বিস্ফোরণে দক্ষিণ কোরিয়ার দুই সৈন্য আহত হন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করেই দুই কোরিয়ার মধ্যে যে সঙ্কট সৃষ্টি হয় তাতে প্রতিদ্বন্দ্বী এ দুই দেশকে সশস্ত্র সঙ্ঘাতের দিকে নিয়ে যায়। দুই কোরিয়ার মধ্যে উত্তেজনা প্রশমনে গত সপ্তাহে তাদের মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। সীমান্তবর্তী অস্ত্রবিরতি গ্রাম পানমুনজমে ব্যাপক আলোচনার পর চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়। ওই চুক্তির আওতায় উভয় পক্ষ সরকারি পর্যায়ে একটি সংলাপ শুরুর ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

তবে পিয়ংইয়ংয়ের শক্তিশালী জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশনের (এনডিসি) মুখপাত্র জানান, দক্ষিণ কোরিয়া চুক্তিটিকে পেঁচিয়ে ফেলছে এবং স্থলমাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় উত্তর কোরিয়াকে ক্ষমা চাইতে বলছে। ছয় দফার এ চুক্তি অনুযায়ী উত্তর কোরিয়া ওই বিস্ফোরণের ঘটনায় ‘দুঃখ প্রকাশ’ করে। তবে এনডিসি মুখপাত্র জানান, পিয়ংইয়ং কেবল ওই ঘটনায় হতাহতদের জন্য শোক প্রকাশ করেছে। ওই মুখপাত্র সিউল ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে শান্তি চুক্তির পর যুক্তরাষ্ট্রের সাথে যৌথভাবে সামরিক মহড়া পরিচালনা করায় দক্ষিণ কোরিয়ার সমালোচনা করেন।

sentbe-top