Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

আমিরাত প্রবাসী সেই সাইকেল আরোহী এখন শয্যাশায়ী

kamalসংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় দিবসে দেশটির জাতীয় পতাকায় বাই সাইকেল সাজিয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়ানো চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার ছদা গ্রামের নজির আহমদের পুত্র কামাল হোসেন (৪৩) স্থান করে নিয়েছিলেন স্থানীয় পত্র-পত্রিকায়। দেশটির প্রতি ভালোবাসা আর আনুগত্য থেকে তিনি ত্রিকোণাকৃতির একটি ফ্রেম বাই সাইকেলের সঙ্গে বেঁধে তাতে অনেকগুলো পতাকা লাগিয়ে ঘুরে বেড়ান পুরো কর্নিশ এলাকায়। ব্যতিক্রমী আমিরাত প্রীতির কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রবাসীদের কাছেও বেশ আলোচিত হন তিনি।

কিন্তু সেই সাইকেলের সঙ্গে প্রাইভেট কারের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন তিনি। রবিবার রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনায় আহত কামাল টানা ১৩ দিনের সংজ্ঞাহীন অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন শারজাহ আল কাশেমি হাসপাতালে। জানা গেছে, গত ২৯ ডিসেম্বর সকালে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে কামালের সাইকেলের সঙ্গে একটি প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে হয়। তিনি সাইকেল থেকে ছিটকে রাস্তার পার্শ্ববর্তী থামের সঙ্গে লেগে আঘাত প্রাপ্ত হন। মাথায় মারাত্মক জখম প্রাপ্ত কামালকে ভর্তি করা হয় শারজাহ আল কাশেমি হাসপাতালে। সেখানেই তার সংজ্ঞাহীন কেটে গেছে তেরটি দিন।

পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম কামালের দেশে রয়েছে তিন কন্যা সন্তান ও অসহায়া স্ত্রী। তার এ করুণ অবস্থায় উৎকণ্ঠায় দিনাতিপাত করছেন তারা। অসহায় কামালের পাশে দাঁড়াতে সবাইকে এগিয়ে আসার জন্যেও আহ্বান জানান তারা। উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম প্রবাসী কামাল হোসেন শারজাহ রোলায় আল বাত্নাহ রেডিমেইড গার্মেন্টস এন্ড আবায়া ট্রেডিং শপের একজন বিক্রয়কর্মী।