cosmetics-ad

যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে পেপালের ‘জুম’ সার্ভিসে

joy-xoom

বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করল অনলাইনভিত্তিক জনপ্রিয় অর্থলেনদেন ব্যবস্থা জুম। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানে এ সেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

‘জুম’ মার্কিন কোম্পানি পেপাল হোল্ডিংসের অংশ হিসেবে বিশ্বব্যাপী অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেম হিসেবে কাজ করে। এটি অনলাইনে অর্থ স্থানান্তর পদ্ধতি ও প্রচলিত কাগুজে পদ্ধতির পরিবর্তে ইলেকট্রনিক মাধ্যম। বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ইন্টারনেট পেমেন্ট কোম্পানি হিসেবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ফ্রিল্যান্সারদের কাছে এটি জনপ্রিয়।

এতদিন প্রবাসীরা বিভিন্ন চ্যানেলে তাদের কষ্টাজিত অর্থ দেশে পাঠাত। এতে যেমন পয়সা খরচ বেশি হতো তেমনি করে অনেক বিড়ম্বনাও পোহাতে হতো। পেপালের জুম সেবা চালুর মাধ্যমে এখন থেকে তারা সহজেই পেপালের অ্যাকাউন্ট থেকে বাংলাদেশে ৪০ মিনিট থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে টাকা পাঠাতে পারবে। এ ছাড়া, যাদের যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আছে তারা পেপাল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার ছাড়াই জুম অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বিদেশে থেকে টাকা পাঠাতে পারবেন।

শুরুতে এক হাজার ডলারের কম অর্থ বিদেশ থেকে পাঠাতে খরচ হবে ৪ দশমিক ৯৯ ডলার। কিন্তু এক হাজারের বেশি ডলার বাংলাদেশে প্রেরণ করলে কোনো খরচ দিতে হবে না।

প্রাথমিকভাবে সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ও সিটি ব্যাংকে জুমের টাকা গ্রহণ করা যাবে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য ব্যাংকগুলোতেও এ সেবা চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

শুধু ফ্রিল্যান্সারারই নয়, এই সেবা ব্যবহার করতে পারবেন সবাই। বিশ্বের ২০৩টি দেশে পেপাল সেবা চালু আছে। এর মধ্যে ২৯টি দেশে পূর্ণাঙ্গ সেবা ও ১০৩টি দেশে ইনবাউন্ড (শুধু টাকা আসবে) সেবা চালু আছে।

জুমের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশসহ ৬৭টি দেশে তাদের অর্থ স্থানান্তর সেবা চালু রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের অনলাইন অর্থ প্রেরণের স্বীকৃত মাধ্যম এটি। ২০১৫ সালের ১ জুলাই পেপাল ৮৯০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে জুমকে অধিগ্রহণ করে। ২০০১ সালে জুম চালু হয়।

জুম সেবা চালু না থাকায় আগে পেপালের অ্যাকাউন্টধারী বাংলাদেশি প্রবাসীরা টাকা পাঠাতে পারতেন না। তবে এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পেপাল অ্যাকাউন্টধারীরা তাদের পেপ্যাল ওয়ালেট ব্যবহার করে প্রতিবার সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলার পাঠাতে পারবেন।

জুম সার্ভিসের সুবিধাসমূহ

মুহূর্তে জমা এবং টাকা পাঠানো: জুমসম্পর্কিত ব্যাংকে একাউন্ট থাকলে মুহূর্তে টাকা জমা এবং পাঠানো যায় বছরের যেকোনো দিনে যেকোনো সময়। মানি ট্রান্সফার সিস্টেমে এ টাকা জমা এবং পাঠানো যায়।

মুহূর্তে টাকা উত্তোলন: জুম এর রয়েছে ৬ হাজার ১৫৭টি লোকেশন। যেকোনো লোকেশন থেকে যেকোনো দিন যেকোনো সময় টাকা উত্তোলন করা যাবে।

দুই দিন ডিপোজিট সুবিধা: যখন টাকা পাঠানো হয় বাংলাদেশ ব্যাংক নির্ধারিত ব্যাংকিং আওয়ারে জুম তার গ্রাহককে দুই দিনের ডিপোজিট রাখার সুবিধা দিয়ে থাকে।

৪.৯৯ ইউ ডলার এবং চার্জ বিহীন: ব্যাংকের মাধ্যমে সর্বনিম্ন ১ হাজার ইউএস ডলারের জন্য জুম ৪.৯৯ ইউএস ডলার চার্জ ধার্য করে থাকে। কিন্তু এক হাজার ইউএস ডলারের ওপরে পরিশোধের জন্য কোনো চার্জ নেই বা চার্জ ফ্রি।

আর্থিক লেনদেন ট্র্যাকিং: কম্পিউটার বা মোবাইল ফোনে টেক্স মেসেজ, ইমেইল নোটিফিকেশন এবং অনলাইন এক্সেস এর মাধ্যমে ২৪/৭ দিনই গ্রাহক তার আর্থিক লেনদেন ট্র্যাক করতে পারেন।

রেফারের মাধ্যমে উপহার: একজন বন্ধুকে রেফার করলে এবং তার প্রথম আর্থিক লেনদেনের জন্য গ্রাহক ২০ ইউএস ডলার সমমূল্যের একটি গিফট পাবে।

কাস্টমার সার্ভিস ২৪/৭ : জুমের রয়েছে কাস্টমার সার্ভিস ২৪/৭। টোল ফ্রি কল নম্বর (৮৭৭) ৮১৫-১৫৩১।

মানি ব্যাক গ্যারান্টি: জুম তার গ্রাককে মানি ব্যাক গ্যারান্টি দিয়ে থাকে।

বাংলাদেশে টাকা উত্তোলনের স্থান: সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ও সিটি ব্যাংক।

সেন্ড মানি: টাকা পাঠানোর জন্য এ লিংকে ক্লিক করতে হবে: https://www.xoom.com/request/

মোবাইলে রিলোড: মোবাইলে রিলোডের জন্য এ লিংকে প্রবেশ করতে হবে: https://www.xoom.com/bangladesh/mobile-reloads

জুম সার্ভিসের আওতাভুক্ত দেশগুলো: আর্জেন্টিনা, অস্ট্রেলিয়া, অস্ট্রিয়া, বাংলাদেশ, বেলজিয়াম, বলিভিয়া, ব্রাজিল, বুলগেরিয়া, কানাডা, চিলি, চীন, কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, ক্রোয়েশিয়া, সাইপ্রাস, চেক রিপাবলিক, ডেনমার্ক, ডমিনিকান রিপাবলিক, ইকুয়েডর, এল সালভাদর, এস্তোনিয়া, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, গ্রিস, গুয়েতেমালা, গায়ানা, হাইতি, হন্ডুরাস, হংকং, হাঙ্গেরি, ভারত, আয়ারল্যান্ড, ইতালি, জ্যামাইকা, জাপান, মেক্সিকো, মোনাকো, নেপাল, নেদারল্যান্ড, নিকারাগুয়া, নাইজেরিয়া, নরওয়ে, পাকিস্তান, পেরু, ফিলিপাইন, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, সান ম্যারিনো, সিঙ্গাপুর, স্লোভাকিয়া, স্লোভেনিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, শ্রীলঙ্কা, সুইডেন, যুক্তরাজ্য, উরুগুয়ে ও ভিয়েতনাম।

চার্জ এবং ফি: ব্যাংক একাউন্ট, ডেবিট কার্ড এবং ক্রেডিট কার্ডে প্রতি ১ হাজার ইউএস ডলার আর্থিক লেনদেনে গ্রাহককে ৪.৯৯ ইউএস ডলার চার্জ পরিশোধ করতে হয়। তবে ক্রেডিট কার্ডে ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক অতিরিক্ত চার্জ ধার্য করতে পারে।

ঝুঁকি: পেপাল ব্যবস্থায় অন্যতম ঝুঁকি হচ্ছে মানিলন্ডারিং। তবে মানি লন্ডারিং ঠেকাতে গ্রাহকদের বাংলাদেশ ব্যাংকের বেঁধে দেওয়া ট্রাভেল কোটার মধ্যে কেনাকাটা করতে হবে।

জুম এবং পেপালে সহযোগিতা পেতে সরাসরি কল করতে পারেন, (877) 815-1531 ( যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে) এবং +1 (415) 395-4225 (যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে থেকে)।