Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

ঘুরে আসুন সিউল ন্যাশনাল মিউজিয়াম

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে ভ্রমনের জন্য জনপ্রিয় স্থানগুলোর মধ্যে সিউল ন্যাশনাল মিউজিয়াম (National Museum of Korea – 국립중앙박물관) অন্যতম।  কোরিয়ার ইতিহাস এবং দক্ষিণ পুর্ব এশিয়ার ইতিহাসের অসংখ্য দলিল পাওয়া যায় এই মিউজিয়ামে। সিউলে প্রায় একশ’র বেশি মিউজিয়াম আছে। যার মধ্যে সিউল ন্যাশনাল মিউজিয়াম প্রধান।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধান এই মিউজিয়াম ১৯৪৫ সালে চালু হয়। ঐ বছরেই কোরিয়া জাপানের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে। মিউজিয়ামটি বিভিন্ন জায়গায় স্থানান্তরিত হওয়ার পর ২০০৫ সালে স্থায়ীভাবে ইয়োংসান ফ্যামিলি পার্কে সুন্দর পরিবেশে স্থাপন করা হয়।  ২লাখ ২০ হাজারের বেশি শিল্পকর্ম সংরক্ষিত আছে এই মিউজিয়ামে।

মিউজিয়ামটির প্রথম তলায় প্রত্নতাত্ত্বিক এবং ঐতিহাসিক দলিলপত্রের নিদর্শন, দ্বিতীয় তলায় ক্যালিগ্রাফী এবং পেইন্টিং এবং তৃতীয় তলায় এশিয়ান সংস্কৃতি, বৌদ্ধ নিদর্শন এবং সিরামিকসের শিল্পকর্ম দিয়ে সাজানো হয়েছে।

২০১০ সালে পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি ভিসিট করা মিউজিয়ামের তালিকায় নবম স্থানে ছিল। প্রত্যেক শনিবার এই মিউজিয়ামে কনসার্ট, এক্সিবিশনসহ বিভিন্ন আয়োজন উপভোগ করার সুযোগ রয়েছে।

chardike-ad

সময়সুচিঃ প্রতিদিনই খোলা।

সোমবার, মংগলবার এবং শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা

বুধবার এবং শনিবার সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা

রবিবার এবং অন্যান্য ছুটির দিন সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা।

প্রবেশ ফিঃ ফ্রি

ঠিকানাঃ Yongsan-dong 6-ga 168-6 (Seobinggo-ro 137), Yongsan-gu; +82 2 2077 9000; www.museum.go.kr

যেভাবে যাবেনঃ সিউল সাবওয়ে ৪ নাম্বার লাইন এবং জুংআং লাইনের এক্সিট ২ দিয়ে বের হলেও মিউজিয়াম পেয়ে যাবেন।