দক্ষিণ কোরিয়ার শীতকালীন অলিম্পিকে নিষিদ্ধ রাশিয়া

olympic-russia-flagআর মাত্র ৬৫ দিন পর দক্ষিণ কোরিয়ায় পর্দা উঠবে শীতকালীন অলিম্পিকের। এর মধ্যেই দুঃসংবাদ পেল রাশিয়া। রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় অ্যাথলেটদের ডোপিংয়ের অভিযোগে এবারের শীতকালীন অলিম্পিক থেকে রাশিয়াকে নিষিদ্ধ করেছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)। তবে রাশিয়ার যেসব অ্যাথলেট ডোপপাপী নন, তাঁদের অলিম্পিক পতাকাতলে আসরটিতে অংশ নেওয়ার পথ খোলা রেখেছে আইওসি।

‘কুকর্মের মাধ্যমে অলিম্পিক আসর এবং খেলাটির শুদ্ধতায় নজিরবিহীন আক্রমণের জন্য’ রাশিয়াকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে ঘোষণা দেন আইওসি সভাপতি টমাস বাখ। তিনি আরও বলেন, ‘এতে (নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত) ক্ষতিকর ঘটনাটি শেষ হয়ে যাওয়া উচিত এবং সিদ্ধান্তটা ডোপিংবিরোধী কার্যক্রমে ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখবে।’

রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় রাশিয়ান অ্যাথলেটদের ডোপ পাপের অভিযোগ নতুন কিছু নয়। তিন বছর আগে সোচিতে শীতকালীন অলিম্পিকে এ নিয়ে সবচেয়ে বেশি সমালোচনা হয়েছে। ব্রাজিলে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে তো এ জন্য অংশই নিতে পারেনি রাশিয়ার অ্যাথলেটিকস দল। এ ছাড়া গত বছর প্যারালিম্পিকেও নিষিদ্ধ হয়েছিল রাশিয়া। ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ডব্লিউএডিএ) এবং আইওসির দুটি তদন্ত প্রতিবেদনে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় রাশিয়ান অ্যাথলেটদের ডোপ পাপের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

সোচি শীতকালীন অলিম্পিক চলাকালে রাশিয়ার তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী ভিটালি মুটকোকেও আজীবন নিষিদ্ধ করেছে আইওসি। মুটকো এখন রাশিয়ার ২০১৮ বিশ্বকাপ আয়োজক কমিটির প্রধান। আইওসি কর্তৃক মুটকোর আজীবন নিষিদ্ধ হওয়া এখন ফিফা কীভাবে নেবে, সেটাই দেখার বিষয়। তবে এরই মধ্যে ফিফা জানিয়েছে, আইওসির সিদ্ধান্তটি তাঁরা ‘গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন’ তবে রাশিয়া বিশ্বকাপের ‘প্রস্তুতিতে তা কোনো প্রভাব রাখবে না’। সূত্র: এএফপি