sentbe-top

আবহাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন কিম জং উন!

kimপ্রায় এক সপ্তাহ আগে উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন কিছুটা অবসর মুহূর্ত পেয়েছিলেন। ওই সময়টিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমালোচনা কিংবা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা বাদ দিয়ে তিনি গিয়েছিলেন পর্বতারোহনে। শীতকালে প্রবল তুষারপাত হওয়া ওই পাহাড়টি নাকি সেদিন একেবারে তুষারপাতবিহীন ছিল। আর দিনটাও ছিল রৌদ্রজ্জ্বল। সেই কারণেই উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ তাদের ওই সংবাদের শিরোণাম করেছিল ‘যিনি আবহাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।’ অর্থাৎ বার্তা সংস্থাটির দাবি কিম জং উন এখন আবহাওয়ার গতি-প্রকৃতিও নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

কেসিএনএ জানিয়েছে, নয় হাজার ফুট উঁচু মাউন্ট পায়েকতুতে ডিসেম্বরে প্রবল তুষারপাত-তুষারঝড় হয়। তবে উনের সফরের সময় এটি ছিল একেবারেই শান্ত। সংবাদমাধ্যমটি তাদের প্রতিবেদনে লিখেছে, ‘এটা ছিল অসাধারণ সুন্দর দৃশ্য নিয়ে মহান প্রভূর পুনরায় আর্বিভাব।’ কিম জং উন যখন পর্বতের সর্বোচ্চ চূড়ায় উঠলেন তখন ‘এটি নজিরবিহীন সুন্দর আবহাওয়া দেখিয়েছে।’

বার্তা সংস্থাটি কিমের পর্বতারোহনের যে ছবি প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা গেছে, ঢোলা প্যান্ট পরিহিত ঝকঝকে জুতা পায়ে কিম দাঁড়িয়ে আছেন পর্বতের চূড়ায়।

উত্তর কোরিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলো বরাবরই কিম পরিবারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ থাকে। এর আগে খবর বের হয়েছিল, কিম জং উন ও বিজ্ঞানীরা এমন এক ইঞ্জেকশন আবিষ্কার করেছেন যেটি দিলে এইডস, ইবোলা, ক্যান্সার, হৃদরোগ, ঠান্ডা-সর্দি সব ভালো হয়ে যাবে।

sentbe-top