মৃত শিশু কবরস্থান থেকে ‘জীবিত’ ফেরত!

death-kidsদাফনের জন্য কবরস্থানে নিয়ে গোসল করানোর সময় চিৎকার করে বেঁচে থাকার জানান দেয় ‘মৃত’ বলে ঘোষিত একটি নবজাতক। কবরস্থানের গোসলের ঘরে গায়ে পানি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নড়েচড়ে ওঠে এবং চিৎকার করে সে। সোমবার (২৩ এপ্রিল) সকালে এ ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর আজিমপুর কবরস্থানে।

এর আগে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এই মেয়ে নবজাতকটিকে মৃত ঘোষণা করা হয়। কবরস্থান থেকে বেঁচে যাওয়া শিশুটিকে নিয়ে তার স্বজনরা দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান।আজিমপুর কবরস্হানের মোহরার হাফিজুল ইসলাম ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন। নবজাতক মীমকে আজিমপুর মেটারনিটি থেকে আগারগাঁওয়ের শিশু হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

নবজাতকটিকে কবর দেওয়ার আগে গোসল করানোর জন্য একটি কক্ষে নিয়ে যান আজিমপুর কবরস্থানের দায়িত্বরত ইয়াসমিন বেগম নামে এক নারী। এসময় নবজাতকের মামা পুলিশ কনস্টেবল শরিফুল ইসলাম অফিস কক্ষে লাশ হিসেবে তার ভাগ্নির নিবন্ধন করার কাজে ব্যস্ত ছিলেন। এসময় গোসলখানা থেকে ইয়াসমিন খবর দেন যে, শিশুটি নিঃশ্বাস নিচ্ছে। নড়েচড়ে উঠেছে। তখন শিশুটির মামা সেখানে দৌড়ে যান। এরপর শিশুটিকে আজিমপুর মাতৃসদনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অ্যাম্বুলেন্সে করে আগারগাঁওয়ের শিশু হাসপাতালে নিয়ে যান স্বজনরা।

আজিমপুর মাতৃসদনের চিকিৎসক আমির হোসেন জানান, সোমবার ভোররাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শিশুটির জন্ম হয়। সকালে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তার মা এখনও ঢামেক হাসপাতালের ১০৫ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন। তিনি বলেন, ‘কবরস্থান থেকে শিশুটিকে এখানে আনা হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর আমাদের অ্যাম্বুলেন্সে করে আগারগাঁওয়ে শিশু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

আজিমপুর মাতৃসনদের সুপার ডা. ইসরাত জাহান বলেন, ‘আমাদের এখানে শিশু ইউনিটে তার প্রাথমিক চিকিৎসা হয়েছে। তবে আধুনিক চিকিৎসা ব্যবস্থা না থাকায় আমরা তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে পরিবারের সঙ্গে শিশু হাসপাতালে পাঠিয়েছি।’ তিনি বলেন, ‘পরিবার আমাদের জানিয়েছিল, শিশুটিকে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করতে নেওয়া হয়েছিল।’

আজিমপুর কবরস্থানের তত্ত্বাবধায়ক হাফিজুল ইসলাম বলেন, ‘কবরস্থানের লাশ নিবন্ধনের রেজিস্টার খাতায় শিশুটির নাম লেখা হয়েছে মীম। ঠিকানা লেখা হয় ধামরাইয়ের শ্রীরামপুরে। তার বাবার নাম মিনহাজউদ্দিন।মা শারমিন আক্তার ।’

জানতে চাইলে ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসিরউদ্দিন বলেন, ‘আমরা কেবলমাত্র খবরটি শুনেছি। বিভাগীয় প্রধানকে তদন্তের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের জানানো হবে।’

সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, ১২টা ৩৪ মিনিটে আগারগাঁওয়ের শিশু হাসপাতালে পৌঁছানোর পর শিশুটিকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

সূত্র- বাংলা ট্রিবিউন