sentbe-top

পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর হাতের লেখা

beautiful-hand-writingপ্রকৃতি মাল্লা পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর হাতের লেখার অধিকারী।  তিনি নেপালের অধিবাসী। প্রকৃতি মাল্লাকে নিয়েই আমাদের আজকের এই আয়োজন।

প্রকৃতি মাল্লা। যার হাতের লেখা এম এস ওয়ার্ডের চাইতেও বেশী সুন্দর! তিনি নেপালের অধিবাসী। পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর হাতের লেখার অধিকারী তিনি। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যাণে যে কোন সংবাদ পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়ে। এভাবেই আমরা উনার নাম জানতে পারি।

প্রকৃতি মাল্লা ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী এবং হাতের লেখার কারণে তিনি এখন বিশ্ববিখ্যাত। কিছুদিন আগে নেপালের একজন উনার হাতের লেখার ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছেড়ে দেন এবং কিছুদিনের মধ্যে সারা বিশ্বে এটা নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়।

beautiful-hand-writingপ্রকৃতি মাল্লার হাতের লেখা দেখলে মনে হয় কম্পিঊটারের কোন ফন্ট। তার লেখার মাঝখানের ফাঁকা জায়গাগুলো সব সমান। এছাড়াও, তিনি লিপিবিদ্যার নতুন একটা উচ্চতা সৃষ্টি করেছেন। এমনকি বিশেষজ্ঞরাও বলেছেন তার লেখা নিখুঁতের প্রায় কাছাকাছি। এই কারণে উনার হাতের লেখা নেপালের সবচেয়ে সেরা হাতের লেখা।

এটা খুবই আশ্চর্যজনক যে কিভাবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ঘন্টার ব্যবধানে কাউকে বিখ্যাত বানিয়ে ফেলে। যদি এই গল্প ফেসবুকে ভাইরাল না হতো তবে আমরা প্রকৃতি মাল্লা এবং তার হাতের লেখার কথা জানতেই পারতাম না। নেপালের একজন মেয়ে যিনি এই প্রতিভা নিয়ে সঙ্গে জন্মগ্রহণ করেন এবং এখন একজন সামাজিক মিডিয়া তারকা।

প্রকৃতি মাল্লা সৈনিক আওয়াসিয়া মহাবিদ্যার ছাত্র।  নেপালি সশস্ত্র বাহিনী থেকে তার অসাধারণ হস্তাক্ষরটির জন্য প্রকৃতি মাল্লাকে পুরস্কৃত করা হয়।

এখন তিনি সারা বিশ্বে জনপ্রিয় এবং মানুষ তার লেখা পড়তে বেশ আগ্রহী। প্রকৃতি মাল্লার লেখা নিজেদের হাতের লেখা আরো বেশী সুন্দর করতে সবাইকে অনুপ্রেরণা দান করে। প্রকৃতি মাল্লা অনেক দূর এগিয়ে যান আমরা এই প্রার্থনা করি।

সৌজন্যে- ফাপরবাজ

sentbe-top