কিশোরগঞ্জে কিশোরকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

kishoreganjকিশোরগঞ্জে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক কিশোরকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর করা হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় নির্যাতনের শিকার ছেলেটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় ৯ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেছে নির্যাতিতর পরিবার। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত ২২ অক্টোবর কিশোরগঞ্জের সদর উপজেলার কালিকাবাড়ি গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কিশোর সাফিককে গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে আবদুল লতিফ ও তার পরিবারের সদস্যরা। এক সময় মৃত ভেবে ছেলেটিকে একটি বাঁশের ঝাড়ের পাশে ফেলে রাখা হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

kishoreganjনির্যাতনের শিকার সাফিক বলেন, মারধরের সময় অজ্ঞান হয়ে যায়। পরবর্তীতে আমাকে তারা রাস্তার পাশে ফেলে চলে যায়। সাফিকের মা বলেন, আমার ছেলেকে এভাবে নির্যাতনের বিচার চাই।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আশঙ্কামুক্ত হলেও সাফিকের শরীরের বিভিন্নস্থানে ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. রমজান মাহমুদ বলেন, তার শরীরের বিভিন্ন জায়গাতে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

এ ঘটনায় সাফিকের মা বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা করেন। কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু শামা মো. ইকবাল হায়াত বলেন, মামলায় অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।