cosmetics-ad

এক যাত্রী নিয়েই ছুটল বিমান

one-passanger

মানুষের চলাচলের সবচেয়ে ব্যয়বহুল মাধ্যম হলো আকাশপথ। সড়ক কিংবা নৌপথে চলাচল করতে যে অর্থ খরচ হয় তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি খরচ হয় আকাশপথে ভ্রমণে। সেকারনে একজন যাত্রী নিয়ে বিমানের গন্তব্যের উদ্দেশে ছুটে চলার ঘটনা সচারাচর দেখা যায় না। কিন্তু এমন ঘটনাই ঘটল ফিলিপাইন্স এয়ার লাইন্সে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমসের এক প্রতিবেদন থেকে পাওয়া তথ্য বলছে, দাভাও থেকে ম্যানিলাগামী ফিলিপাইন্স এয়ারলাইন্সের একটি বিমান একজন যাত্রীকে নিয়েই গন্তব্যে পৌঁছেছে। আর ঘটনাটি ঘটেছে গেল বড়দিনের উৎসবের সময়।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ম্যানিলাগামী ফিলিপাইন্স এয়ারলাইন্সের বিমান পিআর ২৮১০-তে উঠেন ফিলিপাইনের নারী যাত্রী লুইজা এরিপসে। বিমানে উঠে কাউকেই দেখতে না পেয়ে হতভম্ব হয়ে যান তিনি। প্রথমে ঘাবড়ে গেলেও, বিমানকর্মীরা তাকে বলেন বিমানযাত্রা বাতিল করা হচ্ছে না।

ফিলিপাইনের নারী যাত্রী লুইজা এরিপসে তার একাকী বিমানযাত্রার গল্প সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করেছেন। বড়দিনের এমন ঘটনা তার জীবনের একটি স্মরণীয় ঘটনা বলে জানান তিনি। ফেসবুকে তিনি তার পুরো বিমানযাত্রার অভিজ্ঞতার বিবরণ লিখেছেন। শুধু তাই নয়, বিমানে রীতিমতো সেলিব্রিটিদের মর্যাদাও পান ওই নারী।

বিমানপথে যাত্রার বেশ কিছু ছবি তোলেন তিনি। তার তোলা ওই ছবিগুলোতে দেখা যায়, বিমানের পুরো যাত্রীদের বসার আসন ফাঁকা। তিনি একা একটি চেয়ারে বসে আছেন। কিছুক্ষণ পর পর তার খোঁজ নিয়েছেন বিমানের কর্মীরা। এমনকি তার সঙ্গে ছবি তুলতে দেখা গেছে বিমানকর্মীদের।।

বিমান চলাচলের স্বভাবিক নিয়ম হলো যাত্রীসংখ্যা কম হলে আর্থিক ক্ষতি বিবেচনায় বিমানের সেই ফ্লাইটটি বাতিল করা হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে বিমানের ফ্লাইট বাতিল করা হয়নি। আর তাই ফিলিপিন্স এয়ারলাইন্সকে ধন্যবাদ জানাতেও ভোলেননি লুইজা।