cosmetics-ad

ঘুষ দেয়ার অভিযোগে সৌদি প্রবাসীকে পুলিশে দিলেন চেয়ারম্যান

lakshmipur-probashi

লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের দোকানঘর ইজারা পাইয়ে দিতে ঘুষ দেয়ার অভিযোগে মিজানুর রহমান মিজান নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। অসদুপায় অবলম্বন করায় বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান ওই যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেন। আটক মিজান উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের সমেষপুর গ্রামের মৃত মন্তাজ মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রামগঞ্জ পৌরসভার সোনাপুর ইউনিয়নের মৌলভীবাজারে জেলা পরিষদের ১০ ফুটের একটি জমি রয়েছে। সেখানে দোকানঘর নির্মাণ করে ৩০ বছর ব্যবসা করেছেন উপজেলার ভাদুর ইউনিয়নের সমেষপুর গ্রামের মন্তাজ মিয়া। ২০১৫ সালে তিনি মারা যান। তিনি মারা যাওয়ার আগে ওই জমিটি তার ছেলে সৌদি প্রবাসী মিজানুর রহমান মিজান ও দিনমজুর মো. বাবুলকে ইজারা নিতে বলে যান।

এরপর জমিটি একাই নিজের নামে ইজারা নেয়ার জন্য মিজান চেষ্টা করে আসছেন। ওই জমিটি তাকে ইজারা পাইয়ে দিতে কয়েকজন দালাল ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা ঘুষ নেন।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের নাম ভাঙিয়ে ওই ঘুষের টাকা নেয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠে। চেয়ারম্যান বিষয়টি জানতে পেরে ঘুষদাতা মিজানকে জেলা পরিষদে ডেকে আনেন। পরে তাকে সদর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেন, জেলা পরিষদে কোনো অনিয়ম-ঘুষ বাণিজ্য চলবে না। অসদুপায় অবলম্বন করায় একজনকে পুলিশে দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে কোনো প্রকার অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না।