sentbe-top

বাগেরহাটে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, লম্পট গ্রেফতার

male-child
প্রতীকী ছবি

বাগেরহাটের রামপালে ১১ বছর বয়সী এক মাদরাসা ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে ফেরদৌস শেখ (১৮) নামে এক লম্পটকে গ্রেফতার করেছে। সে উপজেলার শরাফপুর গ্রামের লুৎফর শেখের ছেলে।

ধর্ষিতা শিশুটি রামপাল উপজেলার শরাফপুর ফাজিল মাদরাসার দ্বিতীয় শ্রেণির আবাসিক শিক্ষার্থী। শুক্রবার দুপুরে তাকে পুলিশী হেফাজতে নেয়া হয়েছে। শনিবার (২০ এপ্রিল) বাগেরহাট সদর হাসপাতালে তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে জানিয়েছে পুলিশ।

পরিবারের বরাত দিয়ে রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. লুৎফর রহমান শুক্রবার বিকেলে এই প্রতিবেদককে বলেন, মেয়েটির বাড়ি নওগাঁ জেলায়। নানা বাড়ি বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় থাকতো। ছয় মাস আগে মামারা তাকে পার্শ্ববর্তী রামপাল উপজেলার শরাফপুর ফাজিল মাদরাসায় দ্বিতীয় শ্রেণিতে ভর্তি করে দেন। সেই থেকে সে ছাত্রাবাসে থেকে পড়ালেখা করছিল।

তিনি জানান, মাদরাসায় ভর্তি হওয়ার পর সামনের মুদি দোকানি ফেরদৌসের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরে গত ১১ এপ্রিল বিকেলে ফেরদৌস সুকৌশলে মেয়েটিকে একটি ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বৃহষ্পতিবার মেয়েটি ছুটি নিয়ে ফকিরহাটে এসে মামাদের বিষয়টি জানালে তারা পুলিশে অভিযোগ দেন। সেই অভিযোগ পেয়ে ফেরদৌসকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমরা মেয়েটিকে পুলিশী হেফাজতে নিয়েছি। শনিবার বাগেরহাট সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা করা হবে।

sentbe-top