Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

চলন্ত বাসে প্রবাসী নারীকে ধর্ষণ চেষ্টা, চালক-হেলপার গ্রেপ্তার

rapeমানিকগঞ্জের ঘিওরে স্বপ্ন পরিবহনের চলন্ত বাসে জর্ডান ফেরত এক নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে বাসের চালক ও হেলপারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে ঢাকা-দৌলতপুর-টাঙ্গাইল আঞ্চলিক মহাসড়কের পয়লা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে আজ শনিবার আসামিদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন জেলার হরিরামপুর উপজেলার উত্তর মেরুন্ডী এলাকার শীতল মোল্লার ছেলে বাসের চালক নায়েব আলী এবং নাটোরের নলডাঙ্গা ঠাকুর লক্ষ্মীপুর এলাকার হায়দার আলীর ছেলে হেলপার সোহাগ।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, জর্ডান ফেরত ওই নারী শুক্রবার সন্ধ্যায় শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে রওয়ানা দিয়ে মানিকগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে নামেন। এরপর তার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের ঘিওরের উদ্দেশ্যে স্বপ্ন পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন। পথে বিভিন্ন জায়গায় বাসে থাকা সকল যাত্রী নেমে যায়। এ সময় ঘিওরে ধলেশ্বরী নদীর স্টিল ব্রিজ পার হওয়ার পর বাসের লাইট বন্ধ করে দিয়ে হেলপার ও চালক তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

এ সময় ওই নারী চিৎকার শুরু করেন। পরে এক সময় হেলপারকে ধাক্কা দিয়ে বাস থেকে লাফ দেন ওই নারী। পরে বাসচালক ও হেলপার দ্রুত দৌলতপুরের দিকে বাস চালিয়ে যান। তখন স্থানীয়রা বাসটিকে ধাওয়া করে এবং দৌলতপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে দৌলতপুর থানা পুলিশ বাসের হেলপার ও চালককে আটক করে।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আশরাফুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে ঘিওর থানায় একটি মামলা করেছেন। আসামিদেরকে শনিবার ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।