Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

ফাইনাল ম্যাচের পর মরগ্যানের সঙ্গে মদ পান করেন উইলিয়ামসন

kane-eoinদেড় মাসের দীর্ঘ লড়াই শেষে নতুন চ্যাম্পিয়নের দেখা পেয়েছে ক্রিকেট বিশ্ব। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নাটকীয় এক ফাইনালে বাউন্ডারি ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় সোনালি ট্রফিটা নিজের করে নেয় ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ড। এমন এক অদ্ভুত নিয়মে ফাইনাল তো দূরের কথা বিশ্বকাপের কোনো নকআউট পর্বের ম্যাচও নির্ধারণ হয়নি।

chardike-ad

জয় থেকে মাত্র এক রান দূরে থাকায় ট্রফির এতো কাছে এসেও খালি হাতে ফিরে যেতে হয় ব্ল্যাকক্যাপসদের। আম্পায়াররা ভুল না করলে হয়তো এতোক্ষণে ট্রফি নিয়ে ঘরে ফিরত তারা। কিন্তু সেই ভুলগুলো খুব সহজেই মেনে নিয়েছিল তারা। তাদের জায়গায় এশিয়ার কোন দল হলে হয়তো চিত্রটা অন্যরকম হতে পারত।

শুধু মেনে নেয়াই নয় ফাইনাল ম্যাচের পর জয়ী দলের অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যানের সঙ্গে বসে মদ (বিয়ার) পানও করেন কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। এমন কথা জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের কোচ গ্যারি স্টেড। আর এই কথা স্বীকার করতে কোনো দ্বিধাবোধ করেননি নিউজিল্যান্ড অধিনায়কও।

এক প্রশ্নের জবাবে উইলিয়ামসন বলেন, ‘হ্যাঁ আমি (মদ পান) করেছি। মরগ্যান এবং আমি খুব ভালো বন্ধু। সুতরাং এরকম জিনিস করাটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। সে অসাধারণ, ফাইনাল ম্যাচের পর সে ওখানেই হারিয়ে গিয়েছিল। কথা বলার ভাষাই হারিয়ে ফেলে সে।’

উইলিয়ামসন আরও বলেন, ‘এরকম হওয়াটাই স্বাভাবিক বলে আমি মনে করি। দুই মাসের লড়াই শেষে ফাইনালে উঠেও যখন ম্যাচটা টাই হয়। সে বলেছিল, এই ম্যাচের ভিতর এমন কিছুই ছিল না যাতে দুই দলকে আলাদা করা যায়। যেভাবেই হোক এটা উদ্ভট একটা অনুভূতি। যখন একটা ম্যাচে কোনো পরাজয়ী দল নেই কিন্তু ঠিকই এর জয়ী দল নির্ধারণ করা হয়ে যায়।’