Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

‘নাগরিকত্ব আইন অমান্য করলে উত্তর কোরিয়া যান’

tathagataভারতের সংশোধিত নাগরিক আইন যারা মানছেন না; তাদের উত্তর কোরিয়া চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন মেঘালয় প্রদেশের গভর্নর তথাগত রায়। একই সঙ্গে তিনি বলেন, যারা বিভাজনমূলক গণতন্ত্র চান না, তাদের উত্তর কোরিয়া চলে যাওয়া উচিত। তার বিতর্কিত এ মন্তব্যের পর দেশটিতে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে। ভারতের নাগরিকত্ব বিল নিয়ে যখন দেশজুড়ে জোরাল বিক্ষোভ হচ্ছে, তখন বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশে তিনি এই মন্তব্য করলেন।

chardike-ad

শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেয়া এক টুইটে মেঘালয়ের এই গভর্নর বলেন, গণতন্ত্র অপরিহার্যভাবে বিভাজনমূলক হয়। যদি আপনি এটা না চান, তাহলে উত্তর কোরিয়া চলে যান।

তিনি বলেন, বর্তমানে বিতর্কের এই আবহে দুটি জিনিস ভুলে যাওয়া উচিত নয়। এক. এই দেশ একবার ধর্মের নামে বিভক্ত হয়েছিল। দুই. গণতন্ত্র অপরিহার্যভাবে বিভাজনমূলক হওয়া উচিত। আর আপনি যদি এটা না চান, তাহলে উত্তর কোরিয়ায় চলে যান।

দেশটির বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদে ভারতের উত্তরপূর্বাঞ্চলের পাশাপাশি বিভিন্ন রাজ্যে বিক্ষোভ করছেন দেশটির হাজার হাজার মানুষ। এই বিলের বিরুদ্ধে সবচেয়ে জোরাল বিক্ষোভ হয়েছে আসামে। সেখানে কারফিউ জারি করে মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে বিক্ষোভ ঠেকাতে পারেনি রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার কারফিউ ভেঙে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন রাজ্যের হাজারও মানুষ।

এ সময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে অন্তত তিনজনের প্রাণহানি ঘটেছে। নাগরিকত্ব বিলবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে আসামের প্রতিবেশি মেঘালয়েও। শুক্রবার মেঘালয়ের রাজভবন অভিমুখে বিক্ষোভকারীরা যাত্রার শুরুর আগে বিতর্কিত ওই টুইট করেন রাজ্যের গভর্নর তথাগত।

পরে বিক্ষোভকারীরা রাজ্যভবনের কাছে গেলে পুলিশ লাঠিপেটা করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ার গ্যাস রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পুলিশ। এতে বেশ কয়েকজন বিক্ষোভকারী আহত হয়েছেন।

সূত্র : এনডিটিভি।