cosmetics-ad

কিমের জন্মদিনে ট্রাম্পের শুভেচ্ছাবার্তা

trump-kim

যুক্তরাষ্ট্র আর উত্তর কোরিয়ার মধ্যে শত্রুতার ইতিহাস দীর্ঘদিনের। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর থেকে উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতার সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন। দুই নেতার সর্বশেষ আলোচনা অনাকাঙ্খিতভাবে শেষ হয়ে উত্তেজনা তৈরি হলেও কিমকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি ট্রাম্প।

বিভিন্ন মার্কিন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাবার্তা পাঠিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। আর এই খবর জানিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা চুং ইউই। এ সপ্তাহেই তিনি ওয়াশিংটনে ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা চুং ইউই সাংবাদিকদের বলেন, তাকে উত্তর কোরিয়ায় এ বার্তা পৌঁছে দিতে বলা হয়েছে এবং বৃহস্পতিবারেই তিনি বার্তাটি পৌঁছে দিয়েছেন। তবে বার্তাটি লিখিত কিনা বা জন্মদিনের শুভেচ্ছার বাইরেও অন্য কোনো বার্তা ট্রাম্প দিয়েছেন কিনা তা জানাননি তিনি।

ওয়াশিংটন সফর শেষে দক্ষিণ কোরিয়া ফেরার পর চুং বলেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎ করার দিনটি ছিল উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের জন্মদিন। ট্রাম্পের সেটি মনে ছিল এবং তিনি আমাকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাবার্তা তাকে (কিম জং উনকে) পৌঁছে দেয়ার অনুরোধ করেন।’

সঠিকভাবে কিছু জানা না গেলেও ৩৬ বছর বয়সী উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের জন্মদিন ৮ জানুয়ারি বলে ধারণা করা হয়। তবে উত্তর কোরিয়া কখনোই দিনটি কিমের জন্মদিন কিনা তা নিশ্চিত করেনি। তবে তার জন্ম ১৯৮৪ সালে বলে জানিয়েছে।