cosmetics-ad

করোনায় সাহায্যার্থে প্রবাসীদের ‘ফুড ব্যাংক’ চালু

food-bank

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যসহ পার্শ্ববর্তী সবগুলো অঙ্গরাজ্যে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। ফলে জনজীবনে নেমে এসেছে চরম দুর্ভোগ। বিশেষ করে স্বল্প ও মধ্যম আয়ের মানুষরা অসহনীয় যন্ত্রণা পোহাচ্ছে।

এ পরিস্থিতিতে বোস্টন ও পার্শ্ববর্তী প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অসহায় মানুষদের সাহাযার্থে খাবার সরবরাহের উদ্যোগ নিয়েছে ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব মেডফোর্ড (আইসিসিএম) পরিচালিত কমিউনিটি ফুড ব্যাংক। স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের দ্বারা পরিচালিত এ সংস্থাটি অসহায় মানুষদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য সরবারাহের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রবাসীরা।

আইসিসিএম-এর কর্মকর্তারা জানান, শুধু প্রবাসী বাংলাদেশিরাই নন যেকোন মানুষ তাদের প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য যেমন চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, লবণসহ খাবার সংগ্রহের জন্য ফোন বা সরাসরি যোগাযোগ করলে বিশেষ ব্যবস্থায় সরবরাহ করবে বলে জানান কর্মকর্তারা।

একই সঙ্গে এ মহতি কাজের এগিয়ে আসার জন্য নিউ ইংল্যান্ডে বিভিন্ন সংগঠন, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবীদের সহযোগিতা কামনা করেছেন আইসিসিএম-এর কর্মকর্তারা। খাদ্য সংগ্রহসহ যেকোন জরুরি প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন: সৈয়দ নুরুজ্জামান (সভাপতি,ট্রাস্টি বোর্ড) ৬১৭-৯০৯-৮৩১০, মোহাম্মদ ওসমান গনি (সদস্য, ট্রাস্টি বোর্ড) ৬১৭-৯৮১-০০৯৯, হুমায়ুন মোর্শেদ (সভাপতি) ৮৫৭-২৩৭-০০২৩, মোহাম্মদ ইলিয়াছ মাসুদ (সেক্রেটারি) ৮৫৭-২১০-২৩০০ ও মোহাম্মদ মোস্তফা (ট্রেজারার) ৬১৭-৪১২-৮৯৯৯।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে। এছাড়া দেশটিতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও এখন ৬৯ হাজারের বেশি। বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ষষ্ঠ হলেও আক্রান্তের বিচারে তা তৃতীয়।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, করোনা আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩২ জন দেশটিতে প্রাণ হারিয়েছেন। এদিকে শ্রমিক, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান এবং স্বাস্থ্য সেবাখাতের জন্য ২ লাখ কোটি ডলারে একটি প্রণোদনা তহবিলে অনুমোদন দিয়েছে দেশটির উচ্চকক্ষ সিনেট।

জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস করোনায় বিপর্যস্ত বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোকে সহায়তা জন্য ২০০ কোটি ডলারের একটি আন্তর্জাতিক তহবিল গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই অর্থ বরাদ্দ করা হলে দরিদ্র দেশগুলো করোনা মহামারি কিছুটা হলেও সামাল দিতে পারবে।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, কোভিড-১৯ রোগে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৪ লাখ ৭৪ হাজারের বেশি। আক্রান্তদের মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২১ হাজার ৩৫৩ জন। তবে এরমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ১৪ হাজারের বেশি মানুষ। যার ৭৪ হাজারের বেশি চীনে।

ইউরোপের দেশ স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭৩৮ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা ৩ হাজার ৬৪৭ জন। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে; ৭ হাজার ৫০৩ জন। এছাড়া চীনে ৩ হাজার ২৮৭, ইরানে ২ হাজার ৭৭ এবং ফ্রান্সে ১ হাজার ৩৩১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।